ঢাকা বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬
২৮ °সে


কংগ্রেস ও আরএসএস আঁতাত করেছে

কংগ্রেস ও আরএসএস আঁতাত করেছে
পশ্চিমবঙ্গের দুটি আসন নিয়ে মমতার অভিযোগ। ছবি: সংগৃহীত।

অভিযোগটা তুলেছিলেন উত্তরবঙ্গ সফরেই। মুর্শিদাবাদে গিয়ে আবারো একই কথা বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার অভিযোগ, এ জেলার দুই কংগ্রেস প্রার্থী আরএসএসের সহযোগিতায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এ ব্যাপারে স্পষ্ট তথ্য তার কাছে কাছে, এমন দাবিও করলেন তিনি।

মমতা বলেন, ‘বিজেপি-কংগ্রেস আঁতাতের স্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে আমার কাছে। এ জেলায় জঙ্গিপুর আসনে কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন প্রণব বাবুর ছেলে অভিজিত মুখোপাধ্যায়। বাবা গিয়েছিলেন নাগপুরে আরএসএস দপ্তরে, তারই পুরস্কার পাচ্ছেন কংগ্রেস প্রার্থী। বহরমপুরে অধীরের হয়েও নেমে পড়েছে আরএসএস।’ তৃণমূল নেত্রী আরো বলেন, ‘কংগ্রেসের ওই দুই প্রার্থীকে বলি, মুখ খোলাবেন না। আপনারাও ভেবে দেখুন, এদের ভোট দিলে পরোক্ষে আরএসএসকেই প্রশ্রয় দেওয়া হবে কিনা।’

প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীরের বিরুদ্ধে মমতার রোষের ঝাঁঝ এ দিনও স্পষ্ট হয়েছে বারবার। মমতা বলেন, ‘মনে রাখবেন, বেশ কয়েকটি খুনের মামলা এখনও ঝুলে রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।’’ মমতার কটাক্ষ, ‘কই, এক বারও তো তাঁকে ইডি-সিবিআই লেলিয়ে দেওয়ার বিরোধিতা করতে দেখলাম না।’

বহরমপুরের টানা চারবারের সাংসদ অধীরকে হারাতে তিনি যে মরিয়া , তা স্পষ্ট করেছেন মমতা। খোলাখুলি তিনি বলেন, ‘মনে রাখবেন, অধীর চৌধুরীকে হারিয়ে আসনটি অপূর্ব সরকারের হাতে তুলে দিলে বহরমপুর যা চাইবে, তাই দেবো।’

আরো পড়ুন: স্ত্রীর ‘পাপে’ যাজকের নির্বাসন

অধীর অবশ্য মমতার কথা শুনে বলছেন, ‘মমতা নিজেই তো দুবার বিজেপির সঙ্গে ঘর করেছে। সেই কালি মুছতেই এখন আমাদের বিরুদ্ধে এই অপপ্রচার।’ আর অভিজিত বলেন, ‘মমতা কি আমাদের ফোন ট্যাপ করছেন? না-হলে এ তথ্য জানলেন কী করে।’

ইত্তেফাক/এসআর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন