মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সাকরাইন উৎসবে মেতেছিল পুরান ঢাকা

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২২:১৪

পুরানো ঢাকার আকাশে রঙ ছড়িয়েছে ঘুড়ি। আর বাড়ির ছাদে পথে পথে আনন্দে উদ্বেল মানুষ মেতে উঠেছিল ঘুড়ি ওড়ানোর আনন্দে। বেলা যত গড়িয়েছে পুরান ঢাকার আকাশে ততই হাওয়ায় উড়েছে রং বেরঙের ঘুড়ি। বাড়ির ছাদে ছাদে আনন্দ আয়োজন।

উৎসবমুখর পরিবেশে বাড়ির ছাদ থেকে ঘুড়ি ওড়ানো, আতশবাজি ফোটানো এবং মুখে কেরোসিন নিয়ে আগুন খেলাও খেলেছেন অনেকে। সব মিলিয়ে পুরান ঢাকা যেন সাকরাইনের আনন্দে মাতোয়ারা।

আতশবাজিতে ভরে যায় পুরান ঢাকার আকাশ। ছবি: আব্দুল গনি

শেষ দিন শুক্রবার ছিল সাকরাইন উৎসব। ঘুড়ি ওড়ানোর ঐতিহ্যবাহী উৎসবকে পুরান ঢাকার বাসিন্দারা বলে সাকরাইন উৎসব। সাকরাইন উপলক্ষে দিনভর চলে ঘুড়ি ওড়ানো আর কাটাকাটির খেলা। সঙ্গে নাচ-গান আর শীতের পিঠাপুলি খাওয়া। আর সন্ধ্যায় শুরু হয় আতশবাজি, ফানুস উড়ানো আর কেরোসিন মুখে আগুনের হলকা ছোড়ার কসরত।

সন্ধ্যা নামতেই গানের সঙ্গে নাচ, আতশবাজি আর লেজার লাইটের খেলা ছিল প্রায় প্রতিটি ছাদেই। বিশেষ করে আতসবাজিতে রাঙা হয়ে ওঠে পুরো পুরান ঢাকার আকাশ। সন্ধ্যার ঠিক পরেই শুরু হয় কেরোসিন মুখে নিয়ে আগুনে খেলা। 

পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় সাকরাইন উৎসব উদযাপন করা হয়। ছবি: আব্দুল গনি

পুরান ঢাকার বাসিন্দা ফারুক আহমেদ জানান, ছোটবেলা থেকে এই উৎসব করে আসছেন তারা। প্রতিবছর বন্ধুরা মিলে চাঁদা তুলে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপন করেন সাকরাইন উৎসব।

তিনি জানান, সারা দিন ঘুড়ি উড়ানোর পাশাপাশি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী খাবারের আয়োজন থাকে এই দিনে। এর পাশাপাশি ছাদে সাউন্ড বক্সে গান, ফানুস, আতশবাজি, পটকাসহ নানা আয়োজনে উদযাপন করা হয়।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

উত্তরায় গার্ডার পড়ে নিহতের ঘটনায় মামলা

রেল স্টেশনে অযথা ভোগান্তির শিকার যাত্রীর অভ্যর্থনাকারীরা

বিদেশিরা নয়, জনগণই কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারে : মায়া

এবার ক্রেন থেকে রড পড়ে আহত ৫

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

উত্তরায় গার্ডার চাপায় মৃত্যু: ঘটনা তদন্তে ৫ সদস্যের কমিটি

শোক দিবসে দুঃস্থদের মাঝে যুবলীগের খাবার বিতরণ

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বিএনএ’র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন

বিজিবির বিনামূল্যে ওষুধ ও খাদ্য পেয়ে খুশি তারা