মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চট্টগ্রামে সংক্রমণ বাড়ছে, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১০:২২

মহানগরীসহ চট্টগ্রামের সর্বত্র করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলেও জনসাধারণ স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। যানবাহন, হাটবাজার, রাস্তাঘাট ও সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে খুব কম মানুষকেই মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টিকেও তারা গা লাগাচ্ছেন না। স্যানিটাইজার ব্যবহারের ক্ষেত্রে নেই তাগিদ। ইতিমধ্যে ঢাকা ও রাঙ্গামাটিকে ওমিক্রন সংক্রমণের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল ঘোষণা করা হলেও চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ সতর্কতা চোখেই পড়ছে না।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন মো. ইলিয়াস চৌধুরী গতকাল শুক্রবার ইত্তেফাককে বলেন, চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ বাড়ছেই। গত সপ্তাহে ১০০ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হলেও এ সপ্তাহে এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে ৩০০ জনের শরীরে। জিনোম সিকোয়েন্সিং না হওয়াতে চট্টগ্রামে সংক্রমিত জনসাধারণের মধ্যে কতজন ওমিক্রন আক্রান্ত হয়েছেন তা তাত্ক্ষণিকভাবে বলতে পারছি না। তিনি বলেন, জনসাধারণকে সংক্রমণ এড়াতে যেসব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলা হয়েছে—তা মানতে অধিকাংশ মানুষের মধ্যে হেলাফেলা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এই অবস্থা সংক্রমণ রোধে মোটেও সুখকর নয়। অবশ্য চট্টগ্রামে ইতিমধ্যে ৮৭ শতাংশ জনসাধারণকে টিকা প্রদান করা হয়েছে। সংক্রমণ বাড়লেও মৃত্যু সংখ্যা কম।

এদিকে গতকাল শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিগত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ২ হাজার ৩৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৯৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সংক্রমণের হার ১৪ দশমিক ৫২ শতাংশ। তবে এ সময়ে করোনায় মারা যাননি কেউ।

সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত নিয়মিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, নতুন আক্রান্ত ২৬৩ জন মহানগরী এলাকার ও ৩৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

ইত্তেফাক/ ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কমেছে আমদানিপ্রবাহ, চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজের অপেক্ষায় জেটি

চট্টগ্রামে খালে লাফিয়ে পড়ে ২ কিশোরের মৃত্যু

বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘর ঘুরছে সারা দেশে

মীরসরাইয়ে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কা, চালক নিহত

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

লোহাগাড়ায় বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

সাতকানিয়ায় বঙ্গমাতার জন্মদিন পালিত 

১০ থেকে ২৭ আগস্ট নগরীর বাস-মিনিবাসের জরিপ করবে সিএমপি

সীতাকুন্ডের বনে ছাড়া হলো চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়া ১১ অজগর ছানা