মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

উপহার পেয়ে তাদের খুশির সীমা ছিল না

আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১৭:৪৭

শীত এলে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের কষ্ট বাড়ে কয়েকগুণ। বিশেষ করে রাস্তায় খোলা আকাশের নিচে যাদের দিন রাত কাটে তাদের কষ্টের সীমা থাকে না। ছোট ছোট শিশুদের নিয়ে নিদারুণ কষ্টে দিন রাত পার করে মানুষগুলো। এসব মানুষের কষ্টের কথা বিবেচনা করে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা।

শনিবার রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে কয়েক’শ অসহায় মানুষের হাতে কম্বল তুলে দিয়েছে সামাজিক এই সংগঠনটি। শীতের রাতে সামান্য এই উপহার পেয়ে খুশির সীমা ছিল না তাদের।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার উপদেষ্টা শামসুদ্দিন দিদার, মহাসচিব মাহবুবা রহমান কাকলী, সহ-সম্পাদক শামসুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আশিক মাহমুদ, কার্যনির্বাহী সদস্য মাসুদুর রহমান বাঁধনসহ অনেকে।

শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার উপদেষ্টা শামসুদ্দিন দিদার জানান, ছিন্নমূল অসহায়দের কথা বিবেচনা করে তাদের পাশে দাঁড়ানোর এই ছোট্ট প্রচেষ্টা আমাদের। আগামীতেও সুযোগ পেলে তাদের পাশে দাঁড়াবো।

 ছিন্নমূল মানুষের হাতে কম্বল তুলে দেওয়া হচ্ছে।

শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, যারা রাস্তায় রাত কাটায় তাদের মত অসহায় কেউ নেই। এদের কথা বিবেচনা করে শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার এই সামান্য উদ্যোগ নিয়েছে। আগামীতেও আমাদের এমন কর্মসূচি চলমান থাকবে।

সংগঠনটির মহাসচিব মাহবুবা রহমান কাকলী বলেন, এই সামান্য উপহার পেয়ে মানুষগুলো যতটা খুশি হয়েছে তাদের এই হাসিমাখা মুখটা দেখার জন্যই এই রাতের বেলা তাদের কাছে এসেছি। সামান্য উপহার তুলে দেওয়া হয়েছে। আগামীতে আমাদের এমন উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

ইত্তেফাক/ইউবি