শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

আপডেট : ২১ জুন ২০২২, ০৮:১৭

জামালপুর জেলার ৭টি উপজেলায় বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। সোমবার (২০ জুন) যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। জেলার ১২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৬৫টিতেই পানি ওঠায় সেগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু সাঈদ জানান, সোমবার বিকাল ৫টা নাগাদ যমুনার বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে ১৭ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদ সীমার ৪৯ সেন্টিমিটার ওপরে প্রবাহিত হচ্ছে।

জামালপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানায়, বন্যার পানিতে এ পর্যন্ত ১৭১৮ হেক্টর জমির ফসল ডুবে গেছে। এরমধ্যে ২৫ হেক্টরের আমন বীজতলা, ২১৫ হেক্টর জমির আউশ ধান, ১৩২৬ হেক্টরের পাট, ১২২ হেক্টর জমির শাকসবজি ও ৩০ হেক্টর জমির মরিচ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জেলার দেওয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ, সরিষাবাড়ী, বকসিগঞ্জ ও জামালপুর সদর উপজেলায় পানি প্রবেশ করেছে। বন্যাকবলিতদের জন্য ৫০ মেট্রিক টন করে মোট ৩৫০ মেট্রিক টন চাল, নগদ ৭ লাখ টাকা এবং ৪ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন।

জামালপুরের জেলা প্রশাসক শ্রাবন্তী রায় জানান, পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন সর্বাত্মকভাবে কাজ করছে।

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে প্রবাসীরা

তিস্তায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, ত্রাণ বিতরণ

তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে, বন্যার আশঙ্কা

গ্যাস-সংকটে দীর্ঘদিন যমুনা সার কারখানার উৎপাদন বন্ধ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মাদারগঞ্জে কলেজছাত্রী অপহরণ, গ্রেফতার ১

বন্যায় সিলেট অঞ্চলের সড়কের বেহাল দশা, চরম দুর্ভোগ

মাদারগঞ্জে হাসপাতাল থেকে বের করে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রবল বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে চট্টগ্রামের নিচু এলাকা