বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

এপিএ বাস্তবায়নে এবারও প্রথম আইসিটি বিভাগ

আপডেট : ০৫ জুলাই ২০২২, ১৫:৪২

২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে ৫১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ৯৮ দশমিক ৬৬ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয়বারের মতো প্রথম স্থান অর্জন করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন মূল্যায়নের ৬৩টি সূচকের মধ্যে ৬০টিতে শতভাগ সফলতা অর্জন করে আইসিটি বিভাগ সেরা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বৈঠকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত এই সম্মাননা দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (৫ জুন) আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম এ বিভাগের সভাকক্ষে আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এই সম্মাননা হস্তান্তর করেন। এসময় বিভাগ, সংস্থা প্রধান এবং প্রকল্প পরিচালকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রবিবার (৩ জুলাই) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হকের কাছ থেকে উক্ত সম্মাননাপত্র গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।

সরকারি প্রতিষ্ঠানের দক্ষতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে প্রবর্তন করা হয় এই বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ)।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আজ এপিএতে আইসিটি বিভাগ প্রথম স্থান অর্জন করায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি এই অর্জনের অংশীদার হিসেবে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব, সকল সংস্থা প্রধান এবং প্রকল্প পরিচালকগণকে তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফল হিসেবে বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা-কর্মচারিদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

আইসিটি বিভাগের ২০২১-২২ অর্থবছরের আরএডিপি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

এছাড়া তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ২০২১-২২ অর্থবছরের জুন মাসের আরএডিপি-তে অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি বিষয়ক পর্যালোচনা সভা তথ্য ও যোগাযোগ বিভাগের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক প্রধান অতিথি হিসেবে উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন।

আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরসহ বিভাগের অধীন বিভিন্ন সংস্থা প্রধানগণ এবং বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, আইসিটি বিভাগের জুন ২০২২ পর্যন্ত প্রকল্পসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি ১০০ শতাংশের অধিক।

উল্লেখ্য, চলতি অর্থবছরে আইসিটি বিভাগের অধীন ৩টি কারিগরিসহ মোট ৩১টি প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ ১ হাজার ৩০৫ কোটি ৪৭ লক্ষ টাকা।

ইত্তেফাক/এমআর