সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মাথা ন্যাড়া করলে কি ভালো চুল গজায়

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ২০:৩১

জন্মের পরপর শিশুর মাথা ন্যাড়া করে দিলে ভালোমতো চুল গজায় এই ধারণায় অনেকের আস্থা দেখা যায়। কেউ কেউ তো বলেন ১৮ মাসেই মাথাটা কামিয়ে দিলে ভালো। হিন্দুশাস্ত্রে মাথা মুণ্ডন বলে একটি কথা আছে। মাথা ন্যাড়া করলে যে চুল উঠবে তা হবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল এবং ঘন। অন্তত এমনটাই তো অনেকের ধারণা। সত্যিই কি তাই?

অন্তত বিজ্ঞানীরা একথার সঙ্গে একমত না। জন্মের পরপর শিশুর মাথায় যে চুল থাকে তা অপরিণত। সাধারণত নবজাতক শিশুর চুল পাতলা ও নরম হয়। কদিন যেতেই এই চুল ঝরে নতুন চুল গজায়। মাথা কামানোর মানে কি? আপনার মাথার ওপরের অংশে যতটুকু চুল আছে শুধুমাত্র ততটুকুই কামিয়ে ফেলছেন। এতে হেয়ার ফলিকলের উন্নতি অবনতির কোনো সম্পর্কই নেই। তাছাড়াও চুলের স্বাস্থ্য ও প্রকারভেদ বংশগতি বা জিন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।

অতিরিক্ত চুল কাটতে গিয়ে শিশুর মাথায় ফাঙ্গাল ইনফেকশন হতে পারে

বাচ্চাকে বহুবার ন্যাড়া করেও ঘন চুলের বিশ্বাসটি একেবারেই ভ্রান্ত ধারণা। এমনও দেখা গেছে অতিরিক্ত চুল কাটতে গিয়ে শিশুর মাথায় ফাঙ্গাল ইনফেকশন হয়েছে। এতে খুশকি ও ফোঁড়ার মতো সমস্যা হতে পারে। 

তাই মাথা কামালেই আপনার শিশুর চুল ঘন স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হবে এই ভাবনা থেকে বের হয়ে আসুন। ঘন ঘন মাথা কামানোর কোনো প্রয়োজন নেই। তবে নিজের বিশ্বাসের জায়গা পূরণ করতে গিয়ে শিশুর মাথা কামিয়ে দিতেই পারেন। কিন্তু ঘন ঘন মাথা ন্যাড়া না করাই ভালো। 

ইত্তেফাক/আরএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন