বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

উৎসবের আমেজ ঘর সাজুক নতুন ঢঙে

আপডেট : ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫২

উৎসবকে ঘিরে বাঙালির হৃদয়ে ভিন্নধর্মী আমেজ থাকে। ভুঁড়ি ভোজ আর সাজগোজ নিয়ে ব্যস্ত থাকেন উৎসব জুড়ে। আসছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। পূজাকে ঘিরে তাদের আনন্দের যেন শেষ নেই। কেনাকাটা, সাজগোজ সব মিলে হইহই রইরই অবস্থা। কিন্তু এতকিছুর ভিড়ে ঘর সাজানোর দিকে সঠিকভাবে নজর দিতে পারছেন তো। পুজোর সময় শুধু নিজেকে নয়, সাজিয়ে তুলুন ঘরকেও, কীভাবে? 

পুজোয় শুধু নিজেকে নয়, ঘরকেও সাজিয়ে তুলুন নতুন করে। না শুধু পরিষ্কার করার কথা বলছি না, সে তো অনেকেই করে থাকেন। এবার অন্য কিছু হয়ে যাক। ভাবছেন সেটা কী? আসুন দেখে নেওয়া যাক। কম খরচে বাড়িটিকে নতুন রূপে সাজিয়ে তুলুন। কিন্তু ভাবছেন গোটা বাড়ি সাজানো মানেই তো সেটা বিশাল খরচের ব্যাপার! একদমই নয়। অল্প টাকাতেই বাড়ির ভোল বদল করা সম্ভব। কী করে আসুন দেখে নিন।

শুরু হোক দরজার বাইরে থেকে

মূল দরজার বাইরে লাগিয়ে ফেলুন আসল গাঁদার মালা। দরজার দুই পাশে টাঙাতে পারেন চাঁদমালা। এতে বেশ একটা পুজো পুজো আমেজ আসবে।

অপ্রয়োজনীয় জিনিস গুছিয়ে রাখুন

অপ্রয়োজনীয় জিনিস ঘরের জায়গা দখল করে। অনেক সময় বাচ্চাদের খেলনা মেঝেতে পড়ে থাকে। এগুলো স্মৃতি হিসেবে রাখতে না চাইলে কাউকে দিয়ে দিতে পারেন। একটা বাক্সে খেলনাগুলো গুছিয়ে রাখলে ঘর পরিষ্কার দেখাবে।

ঘর সাজুক ফুলের ছোঁয়ায়

কম খরচে ঘর সাজাতে ফুলের বিকল্প নেই। ঘরে ফুল রাখলে দেখবেন, নিজেকেও তরতাজা লাগে। একগুচ্ছ তাজা ফুল ঘরের এক কোণায় রাখলে মন যেমন ভালো হবে, তেমনি ঘরও উজ্জ্বল দেখাবে।

আলপনা

আলপনা দিতে পারেন দরজার সামনে, ঘরের আঙিনায়। আলপনা মাঝে বসাতে পারেন প্রদীপও। 

ঘরের ভেতর গাছ
ঘরে ছোট ছোট গাছ রাখতে পারেন। তাতে কিছুটা হলেও প্রকৃতির ছোঁয়া থাকবে ঘরে। তবে অবশ্যই টবের যত্ন নিতে হবে। যাতে জল জমে না থাকে।

ঠাকুরঘর সাজিয়ে তুলুন

ঠাকুর ঘরেও দিন আলপনা। একটা বড় পেতলের বাটিতে জল দিয়ে তাতে দিয়ে দিন বেশ কয়েকটি নকল পদ্ম। প্রদীপ দিয়ে সাজিয়ে তুলুন।

বিভিন্ন রঙে দেওয়াল সাজান

এক রঙ দিয়ে সব দেওয়াল না রাঙিয়ে, মনের মতো করে সাজাতে পারেন বিভিন্ন রঙে। বিভিন্ন রং দিয়ে দেওয়ালে নকশাও এঁকে নিতে পারেন। এতে ঘরের দেওয়ালটি হবে দৃষ্টিনন্দন।

পেইন্টিং বাড়িয়ে তুলুক সৌন্দর্য

ঘরে শৈল্পিক ছোঁয়া দিতে চাইলে দেয়ালে পেইন্টিং ঝোলাতে পারেন। কম খরচেই এসব পেইন্টিং দিয়ে ঘরের সৌন্দর্য কয়েকগুণ বৃদ্ধি করা সম্ভব।  

টেবিল সাজানো

পুরনো ক্লথ পাল্টে সাধারণ টেবিল ক্লথ এর বদলে পাতুন সাদা লালে টেবিল ক্লথ। এতে বেশ একটা বাঙালিয়ানার ছোঁয়া পাওয়া যাবে। 

পর্দায় আনুন রঙের ছোঁয়া

ঘরের বিভিন্ন জায়গায় সাদা লালের পর্দা টাঙাতে পারেন। পুরনো জামদানি শাড়ি থাকলে সেটা কেটেও পর্দা বানিয়ে ফেলতে পারেন।

পরিবর্তন আনুন বিছানার চাদরে

নিজের ঘরকে সুন্দর করে সাজাতে কে না চায়। আর ঘর সুন্দর থাকলে সহজেই কাজে মন বসে। তাই ঘরকে আরো সুন্দর করতে বিছানার চাদরে পরিবর্তন আনুন। এক্ষেত্রেও একটু রঙিন, সাদা-লাল পর্দা আনতে পারেন। 

এভাবেই অভিনব উপায়ে সাজিয়ে তুলতে পারেন নিজের ঘর। তাই এই পুজোতে শুধু নিজের সাজ নয়, ঘরের সাজেও পরিবর্তন আনুন কম খরচেই।

ইত্তেফাক/আরএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন