মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রেপ্তার, দল থেকে বহিষ্কার

আপডেট : ২১ মার্চ ২০২৩, ২১:৪৫

মেয়েকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় বাবা-কাকা ও কাকাতো ভাইদের পিটিয়ে আহত করা ফরিদপুরের সালথা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রায়মোহন কুমারকে পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার (২১ মার্চ) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই তথ্য জানায় জেলা ছাত্রলীগ। 

এর আগে সোমবার (২০ মার্চ) রাতে ভাঙ্গা উপজেলা সদর এলাকা থেকে রায় মোহনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব ৮ ফরিদপুরের একটি দল। আলোচিত ওই ঘটনা নিয়ে দিনব্যাপী প্রতিবেদন প্রচার করে বিভিন্ন টেলিভিশন। 

ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানজিদুল রশিদ চৌধুরী রিয়ান ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফাহিম আহমেদ স্বাক্ষরিত এক পত্রে জানা যায়, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে সালথা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির পদ থেকে রায় মোহনকে অব্যাহতি দেওয়া হলো। সেই সঙ্গে সালথা উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ফিরোজ খান রাজকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। 

ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তামজিদুল রশিদ চৌধুরী রিয়ান বলেন, আমরা এ ঘটনার পরে ৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করি। তদন্ত কমিটিকে তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন প্রদান করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। পরে উক্ত তদন্ত কমিটি রায়মোহন রায়সহ তাদের এলাকার লোকজনের সঙ্গে পৃথকভাবে কথা বলেন। এছাড়া ভুক্তভোগী ওই মেয়েসহ তার পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন তদন্ত কমিটি। রায় মোহনের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি। তাই সংগঠনের সুনাম ক্ষুন্ন ও ভাবমূর্তি নষ্ট করায় তাকে (রায়মোহন রায়) অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

সালথা থানার ওসি শেখ মো. সাদিক বলেন, উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় বাবা-মায়ের ওপর হামলার ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রায় মোহনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছিল। এর পর থেকেই পলাতক ছিল সে। আজ তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

ইত্তেফাক/পিও