সোমবার, ০৫ জুন ২০২৩, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

রমজানে অর্থ সাশ্রয়ের কিছু উপায় 

আপডেট : ২৬ মার্চ ২০২৩, ২৩:৪১

রমজানে বাজারে পণ্যের দাম দেখে অনেকেরই মাথায় হাত। অর্থ সাশ্রয়ের কথা অনেকের মাথায় সর্বাগ্রে। নাহলে রোজার মাস ভালোভাবে পার করাই যাবে না। তবে রমজানে সাশ্রয় করলে এত ঝামেলা পোহাতে হবে না। কিন্তু কিভাবে খরচ কমাবেন? একটু ভালোভাবে ভেবে দেখলে কাজটা কঠিন না। আপনাকে রোজার মূলমন্ত্র মেনেই চলতে হবে। সংযম করুন। আসুন কিভাবে আপনি আপনার খরচ এই মাসে সমন্বয় করবেন। 

প্রয়োজনীয় পণ্য বাদে আর কিছু নয় 
রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বাদে আর কিছু না কেনাই ভালো। অনেক সময় সপ্তাহান্তের উপলক্ষের কথা ভেবে অনেকেই বাড়তি কিছু পণ্য কিনে থাকেন। অনেক সময় বাড়তি কিছু মশলা, খাদ্য উপকরণ কেনা হয় যা অনেকদিন সংরক্ষণ করে ব্যবহার করা হয়। এমন পণ্য না কেনাই ভালো। এভাবে বাড়তি খরচ কমাতে পারবেন। 

বাইরে খাওয়ার বদভ্যাস ত্যাগ করুন
ব্যস্ততার অজুহাতে বাইরে ইফতার, রাতের খাবার বা সেহরি করার অভ্যাস বাদ দিন। এমনকি বাইরে থেকে ইফতার বা খাবার অর্ডার না দেয়াই ভাল। ঘরে যখন খাবার রান্না করা হবে তখন সেটা পুষ্টিগুণ ধরে রাখবে এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে রান্না সম্ভব হবে। বাজারের মাধ্যমে অনেক খরচ কমিয়ে আনা যায়। 

খাদ্যাভ্যাসে তেলেভাজা নয়
সমজানে তেলেভাজা বা ভারি খাবার স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটায়। তখন বাড়তি ওষুধ কিনে খাওয়ার ফলেও খরচ বাড়ে। শরীর খারাপ হলে কিছু করার নেই। কিন্তু এমন অভ্যাস না গড়াই ভালো যারফলে শরীর খারাপ হয়। 

চলাচলে খরচ কমান
চলাচলের সময় নানাভাবে খরচ সমন্বয় করুন। গণপরিবহনে দিনে ভীড় কম থাকে এখন। পাঠাও বা উবারে প্রয়োজন না হলে যাতায়াত না করাই ভালো। এভাবে অনেকটুকু খরচ সাশ্রয় করে নেয়া সম্ভব। 

রেডি টু ইট বাদ
ইনস্ট্যান্ট বা রেডি টু ইট জাতীয় খাদ্য পরিহার করুন। এগুলো এমনিতেও দামি এবং স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। নিজেই কষ্ট করে রান্না করে নিন। তাতে কম খরচে রান্না করতে পারবেন। 

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন