সোমবার, ০৫ জুন ২০২৩, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ব্যবসায়ীকে মারধর করে আট লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ

আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২৩, ২১:৪৮

মাদারীপুরে এক ব্যবসায়ীকে মারধর করে আট লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আহত ওই ব্যবসায়ী মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) সকালে সদর উপজেলার খোয়াজপুর ইউনিয়নের মধ্যেরচক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই ব্যবসায়ীর নাম সিদ্দিক খাঁন। তিনি উপজেলার রাজারচর গ্রামের লতিফ খানের ছেলে। তবে পুলিশ বলছে মামলা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার রাজারচর গ্রামের সিদ্দিক খান ব্যবসায়িক কাজে মাদারীপুর শহরে যাচ্ছিলেন। পথে শরীয়তপুর-মাদারীপুর আঞ্চলিক সড়কের মধ্যেরচক এলাকার ফাঁকা জায়গায় পেয়ে তাকে মারধর করে এবং টাকা ছিনতাই করে। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিদ্দিককে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

ভুক্তভোগী সিদ্দিক বলেন, অটোরিকশায় আমি মাদারীপুর শহরে আসছিলাম। এ সময় সর্বহারা পার্টির সক্রিয় সদস্য ঈমান ফরাজী, রাসেল ফরাজী ও লুৎফর ফরাজী আমাকে মারধর করে আমার কাছে থাকা আট লাখ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আবু সফর জানান, সিদ্দিক নামে একজনকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, আহত ব্যক্তি একটি মামলা বাদী। মামলার বাদী এবং আসামিরা একই অটোরিকশায় ছিলেন। মামলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। আহত ব্যক্তি অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/পিও