বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে সম্পর্কের সমীকরণ

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১৪:১১

সময়ের সঙ্গে সবকিছুই পরিবর্তনশীল। আজকাল দূরত্ব কমে গেলেও বেড়েছে মনের দূরত্ব। কাছের মানুষ দূরের মানুষকে আপন করছে। বন্ধুত্বের সম্পর্কগুলোও ক্ষণে ক্ষণে রঙ বদলাচ্ছে। 

ডিভোর্স শব্দটা আজকাল ডাল-ভাতের মতো। সম্পর্কের সমীকরণগুলো খুবই জটিল হয়ে উঠছে। ডিভোর্স বা তালাকের অন্যতম প্রধান কারণ মনে করা হয় ত্রিকোণ প্রেমের রসায়ন। এছাড়াও অতি রাগ ও অসহনশীলতার কারণও যুক্ত পারে সংসার ভাঙনে। তবে যাই হোক না কেন, মেনে নেওয়া ও ধৈর্য ধারণ হতে পারে সংসার টিকে থাকার মহৌষধ। 

জানা গেছে, এক জরীপে ২০২৩ এ ডিভোর্স বা তালাক আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। ডিভোর্সের হার বেড়ে ২০২২ এ প্রতি হাজারে ১ দশমিক ৪টি ছিল। ২০২১ এ ছিল এ হার প্রতি হাজারে ৩ দশমিক ৭টি।

এছাড়াও বেশ কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারণেও সম্পর্কে নামতে পারে ধ্বস: 

  • অল্প বয়সে বিয়ে।
  • শারীরিক অক্ষমতা।  
  • বিয়ের ক্ষেত্রে ভুল মানুষকে নির্বাচন করা। 
  • পারস্পরিক বোঝাপড়া।

সর্বোপরি কোনও সম্পর্ক টিকে থাকে দুজনের বিশ্বাস, ভালোবাসা ও বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশের ওপর। দুজন দুজনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে, একে অপরের প্রতি বিশ্বস্ত থাকতে হবে এবং একে অপরকে বুঝতে হবে।

যদি কোনও একটির ঘাটতি দেখা দেয় তাহলে দু’জনকে একসঙ্গে এই পরিস্থিতি সামাল দিতে হবে। কীভাবে একে অপরের সম্পর্ক ঠিক করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করতে হবে এবং একে অপরকে সময় দিতে হবে। যদি কোনোভাবে তা সম্ভব না হয়, তবে দু’জনই ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন