মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

২০২৩ সালে কর্মক্ষেত্রে ১৪৩২ শ্রমিকের মৃত্যু

আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৭:২০

বাংলাদেশে অনিরাপদ কর্মক্ষেত্রের কারণে বিভিন্ন খাতে ২০২৩ সালে ১ হাজার ৪৩২ জন শ্রমিক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৫০২ জন। আগের বছর ২০২২ সালে নিহত ৯৬৭ জন এবং আহত হয়েছিল ২২৮ জন। সে হিসাবে গত বছরের তুলনায় শ্রমিক নিহতের সংখ্যা বেড়েছে ৪৬৫ জন এবং আহতের সংখ্যা বেড়েছে ২৭৪ জন। 

গতকাল শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ অকুপেশনাল সেফটি, হেলথ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ফাউন্ডেশন (ওশি) কর্তৃক কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনাবিষয়ক বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। ১৫টি সংবাদপত্র ও মাঠপর্যায় থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন তৈরির কথা জানিয়েছে ওশি।

ওশি ফাউন্ডেশনের ভাইস চেয়ারপারসন ড. এস এম মোর্শেদ জানান, ২০২৩ সালে কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানিক খাতে নিহত শ্রমিকের সংখ্যা ৩২৯ জন ও আহত শ্রমিকের সংখ্যা ২৭৭ জন এবং অপ্রতিষ্ঠানিক খাতে নিহত শ্রমিকের সংখ্যা ১ হাজার ১০৩ জন ও আহত শ্রমিকের সংখ্যা ২২৫ জন।

খাতভিত্তিক তথ্যানুযায়ী, ২০২৩ সালে পরিবহন খাতে সর্বোচ্চ ৬৩৭ শ্রমিক প্রাণ হারিয়েছে ও আহত হয়েছে ১২৭ জন, ২২০ জন দিনমজুর নিহত হয়েছে ও আহত হয়েছে ৭৬, নির্মাণ খাতে নিহত ১৪৯ এবং আহত ৭২ জন, কৃষিশ্রমিকের  মৃত্যুর সংখ্যা ১৪৬, আহত হয়েছে ১০ জন (যাদের মধ্যে বজ্রপাতে মারা গেছে ৭১ জন),  পোশাকশিল্পে নিহত ৬৪ ও আহত ৮৯ জন, ম্যানুফ্যাকচারিং খাতে নিহত ৯৪ ও আহত ১৫ জন, মত্স্য খাতে নিহত ৫৩ ও আহত ২২ জন,  সেবাখাতে নিহত ২৬ ও আহত ২২ জন, সিরামিকখাতে নিহত ১৭ ও আহত ৯ জন, চামড়াশিল্পে নিহত ৪ ও আহত ১৭ জন, ইটভাটা/ব্রিকফিল্ডে নিহত ১১ ও আহত ৬ জন, জাহাজভাঙা/শিপব্রেকিংয়ে নিহত ৭ ও আহত ২৯ জন, চা-শ্রমিক নিহত ১ ও আহত ৬ জন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রে  নিহত ৩ ও আহত ২ জন। 

ইত্তেফাক/এএইচপি