সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

বগুড়া

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, ইলেকট্রনিকস ডিভাইসসহ আটক ১৯

আপডেট : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:০০

বগুড়ায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগে ১৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) পরীক্ষার সময় বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে মোবাইল ও ইলেকট্রনিকস ডিভাইস ব্যবহারসহ বিভিন্ন অপরাধে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, পরীক্ষা শুরুর পর কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১৯ জনকে ডিজিটাল ডিভাইস এবং মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন অসদুপায় অবলম্বনের অভিযোগে আটক করেন। পরে তাদেরকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

মোবাইল ও কানে ছোট ডিভাইস ব্যবহার করে পরীক্ষা দেওয়ার সময় তাদেরকে সন্দেহভাজন হিসেবে চিহ্নিত করেন বিয়াম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের কক্ষ পরিদর্শক মো. আবু সুফিয়ান। এ সময় তাদেরকে কর্তব্যরত এডিসি শিক্ষা ও আইসিটি নিলুফা ইয়াসমিনের উপস্থিতিতে দেহ তল্লাশি করে আনোয়ার ও আসাদুজ্জামানের কানে ও হাতে ডিভাইস এবং জাকিরুলের হাতে পরিহিত পোশাকের ভেতর মোবাইল পাওয়া যায়। এডিসির নির্দেশে ওই ৩ জনকে আটক করে পুলিশ। এই তিনজনসহ মোট ১৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটকদের মধ্যে এপিবিন স্কুল পাবলিক অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র থেকে ১ জন, সরকারি আজিজুল হক কলেজ থেকে ৪ জন, বিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ৩ জন, বগুড়া সিটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৩ জন, পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে ১ জন, বগুড়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইন্সটিটিউট থেকে ১ জন, সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজ থেকে ১ জন, বগুড়া সরকারি কলেজ থেকে ১ জন এবং বগুড়া পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট থেকে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

বগুড়া সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শাহীনুজ্জামান জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলা যেহেতু হয়নি তাই সবার নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তবে মামলা রেকর্ডের পর তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে।

বগুড়া জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম বলেন, জেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৩৭টি কেন্দ্রে ৩২ হাজার ১৭৯ জন পরীক্ষার্থী ছিলেন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উপস্থিত হয়েছেন ২৩ হাজার ৫৬৫ জন। পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের জন্য ২৬ জনকে বহিষ্কার করা হয়। আর ১৯ জনকে পরীক্ষায় মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করার জন্য আটক করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এবি