সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বইমেলায় সজীব সরকারের বই ‘গণমাধ্যমের ভূত-ভবিষ্যৎ’

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:২২

একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে সজীব সরকারের বই ‘গণমাধ্যমের ভূত-ভবিষ্যৎ’। বইটি প্রকাশ করেছে নবান্ন প্রকাশনী। গণমাধ্যমের গতিপ্রকৃতি ও বিকাশধারা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সঙ্গে এর আন্তঃসম্পর্ক, সাংবাদিকতার চর্চায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের যথার্থ ব্যবহার, সাংবাদিকতা ও সাংবাদিকতা শিক্ষার ওপর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বর্তমান ও সম্ভাব্য প্রভাব, গণমাধ্যম ও নৈতিকতা-ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত জানার পাশাপাশি প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলো নিয়ে নতুন করে চিন্তার উদ্রেক করবে বইটি।

বইটির লেখক সজীব সরকার দীর্ঘ সময় সাংবাদিকতা করেছেন। এ ছাড়া অনেক গণমাধ্যমের পরামর্শক হিসেবেও কাজ করেছেন। এক যুগের বেশি সময় ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতা বিষয়ে শিক্ষকতা করছেন। সংবাদমাধ্যম, শিক্ষকতা ও গবেষণার সুদীর্ঘ অভিজ্ঞতার আলোকে তিনি বইটিতে প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলোর মৌলিক বিশ্লেষণ উপস্থাপন করেছেন।

বইটির বিভিন্ন প্রবন্ধে তিনি দেখিয়েছেন, অতীতে যখনই নতুন কোনো প্রযুক্তির গণমাধ্যমের আগমন ঘটে, তখনই এর প্রভাবে পুরোনো মাধ্যমটি আর টিকবে না বলে আশঙ্কা করা হয়েছে। নতুন প্রযুক্তির গণমাধ্যম পুরোনো গণমাধ্যমটিকে বাতিল বা অপ্রয়োজনীয় করে তোলার মতো ঝুঁকি শুরুর দিকে তৈরি করে ঠিকই, তবে এমন আশঙ্কা শেষ পর্যন্ত বাস্তবে রূপ নেয় না। বইটিতে সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং অনলাইন সাংবাদিকতার নানা দিক নিয়ে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রবন্ধ রয়েছে।

বইটি পাওয়া যাচ্ছে, বইমেলার নবান্ন প্রকাশনীর ৪৮৪-৪৮৫ নম্বর স্টলে। বইটি নিয়ে লেখা সজীব সরকারের মোট বইয়ের সংখ্যা ৯টি। এর মধ্যে এককভাবে লেখা এই বইটি ষষ্ঠ নম্বর বই। এছাড়া যৌথভাবে আরও তিনটি বই লিখেছেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসকে