মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

গরমে একটু স্বস্তি

আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ২৩:২৭

প্রকৃতিতে এখন গরমের দাপট। প্রতিদিনই তাপমাত্রা বাড়ছে। তাই এ সময় পোশাকের ব্যাপারে প্রয়োজন বাড়তি সচেতনতা। একটু ভেবে-চিন্তে পোশাক পরতে হবে।

ফ্যাশন ডিজাইনারদের মতে, গরমে হালকা ও আরামদায়ক পোশাক পরতে হবে। এমন পোশাক বেছে নিতে হবে যা তাপ শোষণ করবে কম। তারা বলছেন, গরমের জন্য সুতি কাপড় আরামদায়ক এবং এ সময়ের পোশাকের আদর্শ রঙ হলো সাদা। কালো বা গাঢ় রঙের পোশাক অতিরিক্ত তাপ শোষণ করে। তাই গরমের সময় এ ধরনের কাপড় এড়িয়ে চলাই ভালো।

গরমে ছেলেদের জন্য হাফশার্ট বা ক্যাজুয়াল শার্ট, টি-শার্ট কিংবা পলো টি-শার্ট আরামদায়ক হবে। বিশেষ করে টি-শার্ট যেমন ফ্যাশনেবল তেমনি আরামদায়ক। বাজারে গোলগলা ও কলার দুই ধরনের টি-শার্টই পাওয়া যাচ্ছে। এসব টি-শার্টে নানা রঙ ও নকশায় ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে প্রিয় ব্যক্তিত্বের ছবি, নানা রকম উক্তি, লোগো, রিকশা পেইন্ট, বর্ণমালা। এছাড়া ফতুয়া গলার টি-শার্টও পাওয়া যাচ্ছে এখন। ফ্যাশনে এখন দারুণ জনপ্রিয় পলো টি-শার্টও। গরমে চেক শার্টের পাশাপাশি প্রিন্টের শার্ট এখন বেশ জনপ্রিয়। ফ্লোরাল মোটিফের হাফশার্ট সবার পছন্দ।

গরমে মেয়েরা চাইলে টি-শার্ট, টপস, ফতুয়া, ম্যাক্সি টাইপ পোশাক পরতে পারেন। তবে, গরমে সবচেয়ে আরামদায়ক পোশাক হলো টি-শার্ট। দেশে এখন অনেক ব্র্যান্ডের দোকানে টি-শার্ট পাওয়া যায়। এসব টি-শার্টে নানা ধরনের ডিজাইন। এছাড়া, টি-শার্ট যেকোনো বয়সেই অনায়াসে পরা যায়। গরমের দিনে মেয়েরা চাইলে কুর্তিও বেছে নিতে পারেন। বাজারে সুতি কাপড়ের কুর্তি পাওয়া যাচ্ছে। এগুলো একদিকে যেমন দেশীয় ঐতিহ্য প্রকাশ করে তেমনি অনেক ফ্যাশনেবলও। আবার মেয়েরা চাইলে এসময় টপস বেছে নিতে পারেন। এছাড়া ফতুয়া হতে পারে গরমের সময়ের পছন্দের পোশাক। প্রতিদিনের কর্মব্যস্ততার মাঝে ফতুয়া হতে পারে আরামদায়ক পোশাক। হালকা কাজ, আরামদায়ক কাপড় ও দাম হাতের নাগালে থাকায় ফ্যাশন সচেতন নারীদের প্রতিদিনের পোশাকের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ফতুয়া। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে নানান ডিজাইনের ফতুয়া পাওয়া যাচ্ছে।

গরমে দিনের বেলায় হালকা রঙ এবং রাতে গাঢ় রঙের ম্যাক্সি ড্রেস বা লং ড্রেস পরা যেতে পারে। বর্তমানে বাজারে নানা প্যাটার্নের ম্যাক্সি ড্রেস পাওয়া যাচ্ছে। টাইডাই, শিবোরি, প্যাচওয়ার্ক ও মার্বেল ডাই করা হয়েছে এতে। এই ধরনের পোশাকের প্যাটার্নের জন্য লিনেন, জর্জেট ও নেটের কাপড় সবচেয়ে উপযোগী। কয়েক ধরনের কাপড় একসঙ্গে ব্যবহার করেও নকশায় বৈচিত্র্য আনা হচ্ছে এখন।

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন