সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ভোলায় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ২৫

আপডেট : ০৪ মে ২০২৪, ০৪:৩৭

ভোলা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

শুক্রবার (৩ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার ইলিশা জংশন বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানা যায়, রাতে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ মোহাম্মদ ইউনুসের (মোটরসাইকেল প্রতীকের) সমর্থক ও আলহাজ মোশারেফ হোসেনের (আনারস প্রতীকের) সমর্থকরা নিজ নিজ প্রার্থীদের সমর্থনে বাজারে মিছিল করে। মিছিলকারীরা ইলিশা ফেরিঘাট এলাকায় মুখোমুখি অবস্থানে আসলে উভয় গ্রুপের মধ্যে উত্তজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়াসহ উভয়পক্ষের মধ্যে বিক্ষিপ্ত ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় আনারস মার্কার সমর্থকরা মোটরসাইকেলের একটি নির্বাচনী অফিস, প্রচারের অটোরিকশা ভাঙচুর করে এবং তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এছাড়াও ফেরিঘাটে অপেক্ষমান আন্তঃজেলার কয়েকটি মালবাহী ট্রাক ভাঙচুর করে।

আহতদের অধিকাংশই নিজস্ব ব্যবস্থায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে তাদের মধ্যে এরশাদ (৩৫) নামের একজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন ছোটন বলেন, মোটরসাইকেল প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস উদ্বোধনের আয়োজনে ছিলাম। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে আমি পুলিশকে খবর দেই। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার আগেই তারা আমাদের ওপর হামলা করে। পরে আইনশৃঙ্খলা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

এ ঘটনায় পুলিশের ভোলা সদর সর্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) রিপন কুমার সরকার জানান, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/এসটিএম