বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বাড়ি ফিরলেন কেজরিওয়াল

আপডেট : ১১ মে ২০২৪, ০৩:২৫

দুর্নীতির মামলায় ৫০ দিন কারাগারে থাকার পর মুক্তি পেয়েছেন ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

শুক্রবার সন্ধ্যায় তিহার কারাগার থেকে ছাড়া পান তিনি। এরপর তিনি বাড়ি ফেরেন। সেখানে পরিবারের সদস্যরা তাঁকে ফুলের মালা পরিয়ে দিয়ে স্বাগত জানান।

এর আগে শুক্রবার অন্তর্বর্তী জামিন পান কেজরিওয়াল। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব খান্না ও দীপংকর দত্ত দুই পক্ষের মতামত শোনার পর তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন।

যদিও আগামী ১ জুন লোকসভা নির্বাচন শেষ হলে পরের দিনই আম আদমি পার্টির নেতা কেজরিওয়ালকে তিহার কারাগারে ফেরত যেতে হবে।

কেজরিওয়াল তিহার কারাগারের ৪ নম্বর ফটক দিয়ে বের হলে আম আদমির নেতা–কর্মী ও সমর্থকেরা শ্লোগান দিয়ে তাঁকে স্বাগত জানান। এ সময় কেজরিওয়ালের স্ত্রী সুনিতা ও দলের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

কারাগার থেকে বের হয়ে কেজরিওয়াল জামিন দেওয়ার জন্য বিচারকদের ধন্যবাদ জানান। এ সময় তিনি আরও বলেন, একনায়কতন্ত্রের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে।

আবগারি (মদ) দুর্নীতি মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গত ২১ মার্চ কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তার করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, কোনো তথ্য-প্রমাণ ছাড়াই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দুর্নীতির একটি টাকাও তাঁদের কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। উদ্দেশ্য পুরোপুরি রাজনৈতিক। নির্বাচনের আগে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রীকে সরকার প্রচার করতে দিতে চায় না। তারা চায় আম আদমি পার্টিকে ছত্রভঙ্গ করে দিতে। সেই কারণে তারা ইডিকে ব্যবহার করেছে।

কেজরিওয়াল এই গ্রেপ্তারের বিরুদ্ধে আবেদন জানিয়ে মামলা করেছিলেন প্রথমে নিম্ন আদালতে। সেখানে তা খারিজ হওয়ার পর তিনি যান হাইকোর্টে। সেখানেও প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর যান সুপ্রিম কোর্টে। সর্বোচ্চ আদালত তাঁর অন্তর্বর্তী জামিন মঞ্জুর করেন। এখন নির্বাচনী প্রচারে কেজরিওয়াল অংশ নিতে পারবেন। দিল্লির ৭ লোকসভা কেন্দ্রের ভোট আগামী ২৫ মে। ১ জুন পাঞ্জাবের ভোট। ৪ জুন ভোটের ফল প্রকাশ। সুপ্রিম কোর্টের এই রায় আম আদমি পার্টিকে (আপ) ভোটের মুখে নতুনভাবে উজ্জীবিত করে তুলবে।

ইত্তেফাক/এসটিএম