শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বিজিবির তথ্যে নিয়োগ প্রতারক চক্রের সদস্যকে গ্রেফতার করলো র‍্যাব

আপডেট : ২৪ মে ২০২৪, ২৩:১৩

বিভিন্ন বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয়ে চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী থেকে প্রতারক শাহারুলকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। শাহারুল নিয়োগ প্রতারক চক্রের হোতা হিসেবে কাজ করতেন।

বৃহস্পতিবার রাতে বিজিবির দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব তাকে গ্রেপ্তার করে। তার কাছ থেকে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও বিজিবির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সম্বলিত পরিচয়পত্র, বিভিন্ন চাকরি প্রত্যাশীদের দেওয়া ফাঁকা চেকবই এবং স্টাম্প জব্দ করা হয়েছে। শাহারুল একসময় বিজিবিতে চাকরি করতেন। একাধিক অপরাধে বিজিবি থেকে চাকুরিচ্যুত হন।

বিজিবি বলছে, শাহারুল ২০০৫ সালে বিজিবিতে যোগ দেন। কর্মরত অবস্থায় বেসামরিক ব্যক্তিদের যোগসাজসে বিভিন্ন জেলার প্রার্থীদের বিজিবিতে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করতেন। পরে ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর সুনিদিষ্ট অভিযোগে তাকে ছয়মাসের কারাদণ্ডসহ চাকুরিচ্যুত করা হয়।

পরবর্তীতে শাহারুল বিভিন্ন দালালচক্রের মাধ্যমে সাধারণ চাকরি প্রার্থীদেরকে প্রলুদ্ধ করার জন্য ভুয়া পরিচয়পত্র বানিয়ে নিজেকে বিভিন্ন বাহিনীর ঊর্ধ্বতন অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রতারণায় নামেন। এই ভুয়া পরিচয়ের আড়ালে সশস্ত্র বাহিনী, পুলিশ, বিজিবি ও অন্যান্য সরকারি সংস্থায় চাকরি দেওয়ার কথা বলে সাধারণ মানুষের সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রতারণা করে আসছিলেন তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাহারুল অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন।

র‌্যাব বলছে, তার বিরুদ্ধে পলাশবাড়ী থানায় মামলা হয়েছে।

এদিকে বিজিবি বলছে, বিজিবিতে চাকরির ক্ষেত্রে শাহরুলদের মতো প্রতারকচক্র থেকে সবাইকে দুরে থাকতে হবে। পাশাপাশি চাকরি পাওয়ার পর প্রতারকচক্রের সঙ্গে কোনো ধরণের যোগাযোগ থাকার তথ্য পাওয়া গেলে চাকুরিরত বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে কর্তৃপক্ষ।

ইত্তেফাক/এমএএম