চবি ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় আটক ৩

চবি ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় আটক ৩
চলন্ত বাসে চবি ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করায় ডিবি পুলিশের হাতে আটক সোহাগ পরিবহনের ৩ জন। ছবি: ফোকাস বাংলা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) মার্কেটিং বিভাগের এক ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওই বাসের চালকসহ ৩ জনকে আটক করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। শনিবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার পর নগরীর চান্দগাঁও থানার বাস টার্মিনাল ও বাহির সিগন্যাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- সোহাগ পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব-১৫৬০৭৭) চালক এহসান করিম (২৭), সুপারভাইজার আলী আব্বাস (৩৫) ও হেলপার ভূট্টো।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন বলেন, ফেসবুকে দেওয়া চবি ছাত্রীর যৌন হয়রানির বর্ণনার বিষয়টি গণমাধ্যমে আসলে আমরা অভিযানে নামি। শনিবার সন্ধ্যার দিকে চান্দগাঁও এলাকা থেকে বাসচালক হেলপার ও সুপারভাইজারকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মূলত বাসের সুপারভাইজারের লালসার শিকার হতে যাচ্ছিলেন ওই ছাত্রী। এ কাজে সহযোগিতা করছিল হেলপারও। তবে ছাত্রীটির সাহসী ভূমিকা ও চিৎকার চেঁচামেচির কারণে ভয় থেকেই তাকে চান্দগাঁও থানার সামনে খালি জায়গায় নামিয়ে দিয়ে দ্রুত চলে যায় বাসটি।

আরও পড়ুন: চলতি মাসে সারাদেশে নদীর ৪৪ হাজার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

২৭ নভেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে নগরীর ২নং গেইট এলাকায় আসার পথে সোহাগ পরিবহনের বাসে ওই শিক্ষার্থী যৌন হয়রানির শিকার হন। গত বুধবার ওই ঘটনার পুরো বিষয়টি বর্ণনা করে ওই শিক্ষার্থী ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন।

উল্লেখ্য, গত ১১ এপ্রিল বিকেলে ক্লাস শেষে করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাসায় ফেরার পথে নগরের রিয়াজুদ্দিন বাজার এলাকায় চলন্ত বাসে যৌন হয়রানির শিকার হন অর্থনীতি বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী। আত্মরক্ষায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে হেলপারকে আঘাত করে চলন্ত বাস থেকেই লাফ দেয়। পরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে নগরীর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত