উলিপুরের ক্ষীরমোহন

উলিপুরের ক্ষীরমোহন
ক্ষীরমোহন [ছবি: ইত্তেফাক]

আমরা অনেকেই ভীষণ ভোজনপ্রিয় মানুষ। খাবারের নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে। আর যদি সেটা হয় মন জুড়ানো মিষ্টি গন্ধ, তাহলে তো কথাই নেই। মনে হতে পারে একটু বেশি বলছি, কিন্তু একদম না; যথেষ্ট উপমার যোগ্য, যতই স্বাদের বর্ণনা দেব মনে হবে খুব কম—এই সুস্বাদু মুখরোচক খাবারটি হচ্ছে উলিপুরের ‘ক্ষীরমোহন’। দুধ, চিনি, ঘি, দুধের ছানা, ময়দা, তেজপাতা, ছোট এলাচ ইত্যাদি দিয়ে তৈরি ঘন রসযুক্ত মিষ্টান্ন।

ক্ষীরমোহনের নাম একবার নাম মনে পড়লে মনে হয় কতদিন খাওয়া হয় না। একবার খেলে ক্ষীরমোহনের অতুলনীয় স্বাদ মুখে লেগেই থাকে। তেঁতুলের নাম শুনলে অধিকাংশ মানুষের মুখে জল চলে আসে ঠিক, যারা একবার ক্ষীরমোহন খেয়েছে তাদের ক্ষেত্রে এই ক্ষীরমোহন ব্যতিক্রম নয়।

কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার পাবনা ভাগ্যলক্ষ্মী মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের বিখ্যাত মিষ্টি। শুধু উলিপুর নয়, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকেও পাওয়া সম্ভব ক্ষীরমোহন, অনলাইনে অর্ডারের মাধ্যমে। জানা যায়, ক্ষীরমোহনের স্বাদ নিয়েছেন ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথ; রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে পাঠানো ক্ষীরমোহন খেয়ে তিনি এর ভূয়সী প্রশংসা করেন। গত শতাব্দীর পঞ্চাশের দশকে শুরু হয়ে ক্ষীরমোহন স্বাদে গুণে সুনাম ছড়িয়েছে দেশ ও বিদেশে। অতিথি আপ্যায়নে ক্ষীরমোহনের জুড়ি নেই।

প্রথম কবে ক্ষীরমোহন খেয়েছিলাম মনে নেই। তবে মজার ব্যাপার হলো, এই ক্ষীরমোহন নাম দীর্ঘদিন আয়ত্ত করতে পারিনি, যখন মনে পড়ত ‘ক্ষীরমন’ বলে ফেলতাম! গন্ধে অতুলনীয় এই ক্ষীরমোহনের প্রেমে যে কেউ পড়তে পারে।

আরও পড়ুন: কেনো খাবেন মিক্সড ড্রাই ফ্রুটস?

বলতে গেলে এটা Love at first sight অর্থাৎ প্রথম দর্শনেই প্রেমে পড়ে যাওয়ার মতো। যে কেউ একবার খেলে স্বাদ ভুলতে পারবে না। সেই বিখ্যাত ক্ষীরমোহন, একবার খেলে তৃপ্তিতে ভরে উঠবে মন। ইচ্ছে করে গলা ছেড়ে বলি— শত্রুকে করবে আপন, উলিপুরের ক্ষীরমোহন।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x