ঢাকা রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
২৮ °সে


মাইলফলকের দুয়ারে দাঁড়িয়ে কোহলি

মাইলফলকের দুয়ারে দাঁড়িয়ে কোহলি
ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ছবি : সংগৃহীত

সীমিত ওভারের সিরিজে দারুণ পারফরম্যান্সের পর এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট চ্যালেঞ্জের সামনে দাঁড়িয়ে আছে ভারতীয় দল। আজ অ্যান্টিগায় শুরু হবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি। এই ম্যাচটি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে পা রাখতে চলেছে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

ম্যাচটায় অবশ্যই আলাদাভাবে নজর থাকবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির দিকে। কারণ, জোড়া রেকর্ডের দুয়ারে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি।

অ্যান্টিগা টেস্টটা অধিনায়ক হিসেবে বিরাটের ২৭তম টেস্ট হতে যাচ্ছে। এরই মধ্য দিয়ে তিনি টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে ম্যাচ খেলার দিক থেকে ছাড়িয়ে যাবেন পূর্বসূরী মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। এই রেকর্ডটা কোহলির হয়ে যাওয়াটা নিশ্চিত।

একটা ‘অনিশ্চিত’ রেকর্ডেও চোখ রাখতে পারেন কোহলি। আর একটা টেস্ট সেঞ্চুরি করতে পারলেই টেস্টে সেঞ্চুরি সংখ্যার দিক থেকে রিকি পন্টিংয়ের সমকক্ষে পৌঁছে যাবেন তিনি। সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক পন্টিংয়ের ক্যারিয়ারে টেস্ট সেঞ্চুরির সংখ্যা ১৯। বিরাট তার থেকে মাত্র এক সেঞ্চুরি দূরে আছেন।

ক্যারিয়ারের এ পর্যায়েই সব মিলিয়ে ৬৮ সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন কোহলি। সমপ্রতি এক দশকে বিশ হাজার রান করার অনন্য কীর্তিও গড়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। কোহলি নিশ্চয়ই এখন শচিন টেন্ডুলকারের সব ফরম্যাট মিলে করা ১০০ সেঞ্চুরির রেকর্ডের দিকে চোখ রাখবেন।

কোহলি অবশ্য ব্যক্তিগত অর্জন নয়, বরং টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হতে পেরে রোমাঞ্চিত। অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে মাঠে নামার আগে তিনি বলেন, ‘লোকে বলে, টেস্ট ক্রিকেট নাকি তার আগের আবেদন হারিয়েছে। তবে, আমি মনেকরি গত কয়েকটা বছরে টেস্টের উত্তেজনা আরো বেড়েছে। এটা এখন আরো বেশি চ্যালেঞ্জিং। জয় বের করা এখন আরো বেশি শক্ত। সেদিক থেকে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ দারুণ একটা ব্যাপার। এখানে এখন উত্তেজনা, চ্যালেঞ্জ আর আবেদনের কোনো অভাব থাকবে না। এর ফলে, সব দেশগুলোই অনেকগুলো ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। টেস্ট ক্রিকেটের মানও বাড়বে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য আমি মনেকরি এর চেয়ে ভালো সময় আর হতে পারে না।’

সাম্প্রতিক সময়ে বিরাট কোহলির দলের যে ফর্ম তাতে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। তবে, এই ক্যারিবিয়ান উইকেটেই ক’দিন আগে টেস্ট সিরিজ খেলতে এসে নাকানি চুবানি খেয়ে গেছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড দল। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে তারা হেরেছিল ২-১ ব্যবধানে। ফলে, জেসন হোল্ডারের দলের বিপক্ষে সতর্কতা অবলম্বনের কোনো বিকল্প নেই কোহলির দলের।

আরো পড়ুন : সতীর্থ-সহকারীদের নিয়ে কোহলির ‘বিচ পার্টি’

অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের জন্য বাড়তি প্রাপ্তি হলো ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার সঙ্গ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের অনুরোধে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারদের সঙ্গে সাবেক এই অধিনায়ক টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে লম্বা সময় কাটিয়েছেন। লারা মূলত খেলোয়াড়দের মানসিকতা নিয়ে কাজ করছেন। তিনি জানালেন, নির্ভয়ে ক্রিকেট খেলার কোনো বিকল্প নেই ক্যারিবিয়ানদের সামনে।

বললেন, ‘আমার মনে হয়, যদি একটা লক্ষ্যে স্থির থাকা যায়, সেই প্রস্তুতিটা অনেক ভালোভাবে হয়। আমার মনে হয়, তরুণ ক্রিকেটারদের মানসিকভাবে আর একটু চাঙা করার প্রয়োজন আছে। আমি ক্যাম্পে এই টিমটাকে যতটা দেখেছি, তাতে সবাইকে খুব উজ্জীবিত মনে হয়েছে। তরুণ ক্রিকেটাররা প্রচণ্ড পরিশ্রম করছে। সত্যি বলতে কোচ ফ্লোয়েড রিফার ও তার টিম এক সঙ্গে খুব ভালো কাজ করছে। দলটার মধ্যে সবই আছে। এখন কেবল ওদের নির্ভয়ে ক্রিকেট খেলতে হবে।

ইত্তেফাক/ইউবি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন