ঢাকা রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
৩২ °সে


আশুলিয়ায় তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবাসহ আটক ৫

আশুলিয়ায় তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবাসহ আটক ৫
গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ৫ জন। ছবি: ইত্তেফাক

সাভারের আশুলিয়ায় এক তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবাসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার ভোরে আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এর আগে রবিবার বিকালে সৎ বাবাসহ ৫ বখাটের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক গণধর্ষণের অভিযোগ এনে আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই ভুক্তভোগী তরুণী।

আটককৃতরা হলো, পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া থানার চরখালী গ্রামের মৃত জব্বার হাওয়ালাদারের ছেলে মো. সজিব হাওলাদার (২৮), রংপুর জেলার কাওনিয়া থানার গদাই গ্রামের ওসমান শেখের ছেলে মামুন ইসলাম (২২), বরিশাল জেলার কোতায়ালী থানাধীন হিজলা গ্রামের গগন আলীর ছেলে নুরে আলম (২৫), গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি থানার হরিনাথপুর গ্রামের মো. আমিরুল ইসলামের ছেলে হাবিব (২০) এবং ভুক্তভোগী তরুনীর সৎ বাবা গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাহপুর থানাধীন পশ্চিমখামার গ্রামের তাইজুল ইসলাম (৪০)।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, গত শনিবার ভুক্তভোগী ঐ তরুণী তার খালার বাসা আশুলিয়ার জিরাবো থেকে কাঠগড়ায় ফেরার পথে তরুণীর সৎ বাবা ও সজিব নামে এক যুবক কৌশলে তাকে একটি সিএনজিতে তুলে নেয়। পরে সিএনজিটি তরুণীকে আশুলিয়ার ইয়ারপুর এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে থাকা মামুন, নুর আলম ও হাবীব নামে তিন বখাটে ওই তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনার পরদিন রবিবার ভুক্তভোগী তরুণী গণধর্ষণের অভিযোগ এনে আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এ অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ গতকাল সকালে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সৎ বাবাসহ ৫ জনকে আটক করে।

আরও পড়ুন: ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন রংপুরে নেই

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ জানান, আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া ভুক্তভোগী তরুণীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন