ব্রিটেনের নির্বাচনে লড়ছেন ৯ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ

ব্রিটেনের নির্বাচনে লড়ছেন ৯ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ
ওপরে বাঁ থেকে তিনজন ডা. আনোয়ারা আলী, আফসানা, মেরিনা মাসুদ। ডান থেকে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, রুশনারা আলী ও রূপা হক। বাঁ থেকে নিচে ড. বাবলিন মল্লিক, নুরুল হক আলী ও আখলাক খান

যুক্তরাজ্য সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়েছে গতকাল বৃহস্পতিবার। এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী। যাদের ৭ জনই নারী। বিরোধী লেবার পার্টি থেকে লড়ছেন সর্বোচ্চ ৭ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী। লিবারেল ডেমোক্র্যাট ও কনজারভেটিভ পার্টি থেকে এক জন করে লড়ছেন। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থীদের বেশিরভাগই নির্বাচনে জয়ী হতে পারেন বলে পূর্বাভাস বলছে।

২০১০ সাল থেকে বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো আসনে টানা তিনবার লেবার পার্টির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন রুশনারা আলী। এবারও তিনি জয়ী হবেন বলে আশা করা হচ্ছে। ৪৪ বছরের এ রাজনীতিকের জন্ম সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার ভুরকি গ্রামে। ছোটোবেলায় মা-বাবার সঙ্গে লন্ডনে যান। ২০১০ সালের পর ২০১৫ সালের নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে নির্বাচিত হন রুশনারা আলী। ২০১৭ সালের নির্বাচনেও ভোট ব্যবধান বাড়ে।

লন্ডনের পপলার অ্যান্ড লাইমহাউস আসনে লড়ছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী আপসানা বেগম। তিনি প্রথমবারের মতো লেবার পার্টির প্রার্থী। তিনি টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক কাউন্সিলর ও মেয়র মনির উদ্দিন আহমদের মেয়ে। লেবার পার্টির আরেক প্রার্থী দুইবারের এমপি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রুপা হক। লেবার পার্টির প্রার্থী রুপা এবারও জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

পরপর দুইবার এমপি হয়েছেন বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক। লন্ডনের হ্যামপস্টেড ও কিলবার্ন আসন থেকে এবার তৃতীয়বারের মতো প্রার্থী হয়েছেন তিনি। এখন হ্যাটট্রিক জয়ের সম্মুখে দাঁড়িয়ে তিনি। প্রধানমন্ত্রীর বোন শেখ রেহানার দ্বিতীয় সন্তান টিউলিপ তার ব্যক্তিগত ইমেজের কারণে আবারও জয়ী হতে পারেন। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, পূর্ব ইউরোপীয় ও মুসলিম ভোটারদের সমর্থন টিউলিপের জয়ে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

দক্ষিণ পূর্ব লন্ডনের বেকেনহাম আসনে লেবার পার্টির প্রার্থী ব্যারিস্টার মেরিনা মাসুমা আহমেদ। বর্তমানে কনজারভেটিভ পার্টির দখলে রয়েছে আসনটি। গত দুই নির্বাচনে মেরিনা পরাজিত হলেও ক্রমাগত বেড়েছে ভোটের হার। তাই এবারের নির্বাচনে জিততে পারেন নারায়ণগঞ্জে জন্ম নেওয়া মেরিনা মাসুমা।

ব্রিটেনের তৃতীয় বৃহত্তম দল লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (লিবডেম) থেকে প্রার্থী হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী ড. বাবলিন মল্লিক। কার্ডিফ সেন্ট্রাল আসন থেকে লড়ছেন তিনি। মৌলভীবাজারের মেয়ে বাবলিন জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

লন্ডনের হ্যারো ওয়েস্ট আসন থেকে কনজারভেটিভ পার্টির হয়ে লড়ছেন সাবেক কাউন্সিলর ডা. আনোয়ারা আলী। সবশেষ নির্বাচনে একই দল থেকে টাওয়ার হ্যামলেটসের প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি। আনোয়ারার আদি নিবাস সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায়।

আরও পড়ুন: বৈদেশিক বাণিজ্যের আড়ালে বেড়েছে অর্থ পাচার

দুই পুরুষ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী হলেন নুরুল হক আলী ও আখলাক খান। স্কটল্যান্ডের অ্যাবারডিন নর্থ সংসদীয় এলাকা থেকে লেবার পার্টির প্রার্থী হয়েছেন নুরুল হক আলী। প্রায় ২৭ বছর ধরে লেবার পার্টির সঙ্গে যুক্ত তিনি। নির্বাচনে হার্টফোটশেয়ার থেকে লেবার দলের প্রার্থী হয়ে লড়ছেন সিলেটের আদি বাসিন্দা আখলাক খান। তাদের মধ্যে কেউ জিতলে প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ পুরুষ হিসেবে সে দেশের পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

ইত্তেফাক/নূহু

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত