বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭
৩১ °সে

ক্ষমা চাইতে হবে প্রধানমন্ত্রী ওলিকে: নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি

ক্ষমা চাইতে হবে প্রধানমন্ত্রী ওলিকে: নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি
নেপালের প্রধানমন্ত্রী পিকে শর্মা ওলি।

'অযোধ্যা নেপালে, রাম ছিলেন নেপালি রাজপুত্র’। নেপালের প্রধানমন্ত্রী পিকে শর্মা ওলির এমন মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন দেশটির কমিউনিস্ট পার্টির বেশ কিছু নেতা। তারা প্রধানমন্ত্রী ওলিকে অচিরেই ক্ষমা চাওয়ার অনুরোধ জানান।

নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির উপনেতা বামদেভ গৌতম জানান, তিনি পিএম ওলির সঙ্গে অযোদ্ধা রাজ্য ও লর্ড রামার বিষয়ে দুই বছর আগে আলোচনা করেছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে কোন প্রমাণ ছাড়া মন্তব্য করতে নিষেধ করেছিলেন।

তিনি বলেন, প্রত্যেকেই ভিন্ন ভিন্ন ধর্ম অনুসরণ করে। কেউ তাদের এসব ধর্মীও অনুভূতি নিয়ে কথা বলতে পারে না। লর্ড রামার জন্মস্থান নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে বিতর্কসৃষ্টি হয়েছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানাই, আপনি দ্রুত ক্ষমা চেয়ে এ বিতর্কের অবসান ঘটান।

এর আগে, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম অবতার রাম নেপালের রাজপুত্র ছিলেন এবং অযোধ্যর অবস্থান নেপালেই ছিল বলে দাবি করেছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। তার এই মন্তব্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি।

ভারতের গণমাধ্যমেও তার বক্তব্যকে 'বিভেদ সৃষ্টিকারী' বলে বর্ণনা করা হয়েছে। অন্যদিকে নেপালের ভেতরেও তিনি সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

আরও পড়ুন: করোনায় মারা গেছেন বাবা, হাসপাতাল হেল্পলাইন প্রতিদিন জানায় রোগী সুস্থ!

প্রধানমন্ত্রী ওলি তার বক্তব্যে বলেছেন, আমরা এখনো মনে করি, আমরা (নেপালিরা) সীতাকে ভারতের রাজপুত্র রামের কাছে তুলে দিয়েছিলাম। কিন্তু আমরা দিয়েছিলাম অযোধ্যার রাজপুত্র রামের কাছে, ভারতের রামের কাছে নয়। অযোধ্যা হল বীরগঞ্জের খানিকটা পশ্চিমের একটি গ্রাম। সেটা এখন আর অযোধ্যা নামে নেই। এএনআই।

ইত্তেফাক/আরআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত