মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

হাত রাঙানোই নুসরাতের স্বপ্নের পেশা

আপডেট : ১৬ মে ২০২২, ১৯:১৪

বিয়েবাড়ির আলোঝলমল উৎসবে সবার দৃষ্টি থাকে বউ এবং বরের দিকে। তবে বিয়েবাড়িতে বউ এর দিকে যেন একটু বাড়তি নজর। গায়ে হলুদ থেকে বিয়ের রিসেপশন পর্যন্ত পরিবারের আদরের কন্যার। বিভিন্ন পরিবারের আদরের কন্যাদের হাত রাঙানোর দায়িত্ব নিয়েছেন আরেক কন্যা। গুরুদায়িত্ব নেওয়া কন্যাটির নাম নুসরাত জাহান সোনিয়া।

অনেকটা শখের বসেই নুসরাত শুরু করেন মেহেদি দিয়ে হাত রাঙানোর কাজ। শখের বসে মেহেদি দেওয়ার কাজটিকে আস্তে আস্তে বানিয়ে ফেলেন তার পেশা। নুসরাত একজন পেশাদার মেহেদি আর্টিস্ট।

২০১৪ সালে শুরু করে বিন্দু বিন্দু করে গড়ে তুলেছেন তার নিজস্ব মেহেদি দেয়ার একটি ফেসবুক পেজ। তার ফেসবুক পেজের নাম ‘Nusrat Mehedi & Fashion Buzz’। নুসরাতের কাছে মেহেদি দেয়া একটি আবেগের জায়গা।

এ সম্পর্কে নুসরাত বলেন, ‘মেহেদি অনেকের কাছে ছোট মনে হলেও, মেহেদি জিনিসটা আমার কাছে অনেক বড়। মেহেদি নিয়ে আরও এগুতে চাই।’

মেহেদি আর্টিস্ট নুসরাত শুধু মেহেদি দিয়ে হাতে রাঙানোয় থেমে থাকেননি, মেহেদি নিয়ে আয়োজন করেছেন মেলাও। ঢাকার ওয়েস্টিনে নারী দিবস উপলক্ষে নিজ উদ্যোগে আয়োজন করেন মেহেদি মেলা। এছাড়াও ভালোবাসা দিবসে লা মেরিডিয়ান হোটেলে কয়েকবার মেহেদি মেলাও করেছিলেন। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে মেলাতে অংশগ্রহণ করেন। রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশান বনানীর বিভিন্ন বড় ইভেন্টে অংশগ্রহণ করেন। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় নুসরাত দিয়েছিলেন মেহেদির স্টল।

নুসরাত জাহানের প্রাপ্তির ঝুলিও কিন্তু কম নয়। দুইবার তিনি মেহেদী আর্টের জন্য পেয়েছেন পুরস্কার। বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন তারকার হাত রাঙিয়েছেন মেহেদি দিয়ে। তিনি যেন দেশের বাইরের সেলিব্রেটিদের হাত রাঙাতে চান। মেহেদিকন্যা নুসরাত শুধু মেহেদি পরান তা না, পাশাপাশি রয়েছে নিজস্ব একটি দোকান। নুসরাতের দোকানটির নাম ‘স্টাইলিশ কালেকশন’। এই দোকান এবং মেহেদির পাশপাশি নুসরাত অর্ণামেন্টসহ আরও অনেক পেশায় যুক্ত রয়েছেন।

নুসরাত জাহান একজন সফল নারী উদ্যোক্তা। অনেক নারীর কাছে তিনি অনুপ্রেরণা, মেহেদি দেওয়াকে প্রফেশন হিসেবে সাফল্যের দেখা পাওয়া যায় তার অকাট্য উদাহরণ নুসরাত জাহান সোনিয়া। স্বপ্নকে সত্যি করার প্রয়াসই নুসরাত পেয়েছেন সাফল্যের সিঁড়ি।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ফলে উদ্ভূত পরিবর্তন মোকাবিলার উপর গুরুত্বারোপ করেছেন রাদওয়ান মুজিব

বিশ্ব রক্তদাতা দিবসে তাদের অনুভূতি

বাজেট ২০২২-২৩

তরুণরা যা ভাবছেন

ফোর্বসে সাত বাংলাদেশি তরুণ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চা কিনলে ফ্রি বই পড়ার সুযোগ

নোয়াখালীর ক্রীড়াঙ্গনের ‘মিলন স্যার’ 

শিশুদের জন্য অনন্তার ‘টড-লার্ন’

দেশের সর্বাধুনিক শিক্ষা প্রযুক্তি নিয়ে শিখো’র পথচলা