সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ফলে উদ্ভূত পরিবর্তন মোকাবিলার উপর গুরুত্বারোপ করেছেন রাদওয়ান মুজিব

আপডেট : ২৩ জুন ২০২২, ১২:২১

সিআরআই ট্রাস্টি এবং বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক বলেছেন, বাংলাদেশ যখন উন্নয়নের নতুন ধাপে প্রবেশ করছে, তখন অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বজায় রাখা এবং এর সঙ্গে আসা পরিবর্তনগুলো ব্যবস্থাপনার মতো দুটি চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

দেশের প্রথম নীতি-ভিত্তিক সাময়িকী হোয়াইটবোর্ডের অষ্টম সংখ্যার সম্পাদকীয় নোটে প্রধান সম্পাদক রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক বাংলাদেশ যে অর্থনৈতিক কাঠামোগত পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে এবং দেশ কীভাবে তা আরও ভালোভাবে মোকাবেলা করতে পারে তা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক কাঠামোগত রূপান্তরের সম্মুখীন এশিয়ার উদীয়মান দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। শিল্পায়ন এবং নগরায়ন এই প্রক্রিয়ার মূল বিষয়। 

ক্রমবর্ধমান সমস্যা কাটিয়ে ওঠার জন্য, নীতিনির্ধারকদের অবশ্যই দ্রুত ও দৃঢ় সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে কাজ করতে হবে যাতে নিশ্চিত করা যায় যে নগরীগুলোতে সুষ্ঠু পরিবেশ বিদ্যমান থাকে এবং বাণিজ্য বিকশিত হতে পারে। রাদওয়ান একজন নীতিনির্ধারণী পরামর্শদাতা এবং যুব আইনজীবী। তিনি ‘আসুন আমরা যে স্প্রিংবোর্ডটি তৈরি করেছি সেটি ব্যবহার করি’ শীর্ষক নিবন্ধে এ অভিমত তুলে ধরেন।

তরুণ, প্রযুক্তি-প্রিয় বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন জনসংখ্যা, পূর্ববর্তী প্রজন্মের তুলনায় উচ্চ শিক্ষার নিয়ে শ্রমশক্তিতে প্রবেশ করছে। দেশের তৈরি পোশাক খাত বিশ্ব নেতৃত্ব দিচ্ছে। অন্যান্য শিল্পগুলোও এটিকে অনুসরণ করতে প্রস্তুত এমন লক্ষণ রয়েছে। অবকাঠামো মেগা-প্রকল্পগুলোর অর্থনৈতিক বাধাগুলো দূর করছে। দেশ টেক-অফের জন্য প্রস্তুত- কিন্তু নীতিনির্ধারকরা কীভাবে নিশ্চিত করবেন যে এটির একটি নিরাপদ লঞ্চিং প্যাড রয়েছে। এ বিষয়ে রাদওয়ান মুজিব জোর দিয়েছেন।

ত্রৈমাসিক ম্যাগাজিন হোয়াইটবোর্ডের অষ্টম সংখ্যায় দেশের অর্থনৈতিক রূপান্তর ও নীতিনির্ধারণী সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

এশিয়ায় সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতি নির্ধারণের কয়েক দশক ধরে চলে আসা অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাসের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক গুস্তাভ পাপায়েক মন্তব্য করেন যে, উৎপাদনে বৈচিত্র্য আনা আবশ্যক। তিনি তার সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের মতো জনবহুল দেশে কীভাবে শিল্পকেন্দ্রিক কর্মসংস্থান সৃষ্টির ফলে দারিদ্র্য বিমোচন হতে পারে তার রূপরেখা তুলে ধরেন।

যে কোনো উন্নয়নশীল অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধির মূল চালিকাশক্তি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি আকারের উদ্যোগগুলো শুধুমাত্র একটি উপযুক্ত নিয়ন্ত্রক কাঠামোর মধ্যেই উন্নতি করতে পারে তা পর্যবেক্ষণ করে ফেরদৌস রহমান এবং শেনিন শেরজিন প্রমি যুক্তি দিয়েছেন যে, একটি আধুনিক শাসন আমল এই মুহূর্তে প্রয়োজন এবং পুরানো আইন সংস্কারের জন্য এটি একটি ভালো অবস্থায় রয়েছে।

অলাভজনক সংস্থা সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) কর্তৃক প্রকাশিত একটি নীতি-ভিত্তিক ত্রৈমাসিক হোয়াইটবোর্ড বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত শিক্ষাবিদ ও বিশেষজ্ঞদের সুলিখিত নিবন্ধ প্রকাশ করছে। এতে নীতিগত সমস্যাগুলোর পাশাপাশি বিভিন্ন চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলার জন্য নীতিনির্ধারকদের সামনে নানা উপায় উপস্থাপন করার চেষ্টা রয়েছে।

ম্যাগাজিনের প্রথম সংখ্যায় স্বাধীনতা-উত্তরকালে বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর গৃহীত নীতিগুলো গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরা হয়েছে।

ইত্তেফাক/টিআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ছয় দেশের চার শতাধিক তরুণের অংশগ্রহণে এসডিজি ইয়ুথ সামিট

বিক্রমপুরের জুবায়ের এখন অ্যামাজনের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার

এই সময়ের সফল সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার

ইত্তেফাক-এনএনও লিডার্স সামিট সোমবার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশ্ব রক্তদাতা দিবসে তাদের অনুভূতি

বাজেট ২০২২-২৩

তরুণরা যা ভাবছেন

ফোর্বসে সাত বাংলাদেশি তরুণ

চা কিনলে ফ্রি বই পড়ার সুযোগ