বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নাটোরে নকল স্বর্ণের মূর্তি বিক্রির প্রতারক চক্রের ৭ সদস্য আটক

আপডেট : ২১ নভেম্বর ২০২২, ১৫:২১

নাটোরের সিংড়ায় প্রতারণার মাধ্যমে নকল স্বর্ণের মূর্তি বিক্রির অভিযোগে ৭ জনকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার (২০ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার পিপলশন দড়িপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প। নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পিপলশন দড়িপাড়া গ্রামের মো. মন্টু (৪০), মো. মুকুল (৪৪), মো. শফিকুল (৩০), মোহাম্মদ আলী (৪০), মো. জাহিদুল ইসলাম (৫৫), মো. রজিম আহম্মেদ (২২) এবং বগুড়ার শেরপুর থানার লাঙ্গল মোড়া গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেন (৩৮)। 

সোমবার সকালে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে র‌্যাব জানায়, প্রতারণার শিকার নাটোরের লালপুর উপজেলার সালামপুর গ্রামের মহসিন আলীর ছেলে মো. তরিকুল ইসলাম (২৮) অভিযোগ করেন যে, গত মার্চ মাসে রাজশাহীর বাঘার শাহদোলা মাজার জিয়ারতের সময় প্রতারক চক্রের একজনের সঙ্গে পরিচয় হয় এবং ভূক্তভোগীর সঙ্গে মোবাইল নম্বর আদান প্রদান হয়। প্রতারক ভূক্তভোগীকে বিভিন্ন সময় ফোন দিয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরবর্তীতে একটি নকল স্বর্ণের মূর্তি প্রতারক চক্রের সদস্যদের কাছ থেকে ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকায় ক্রয় করে ভূক্তভোগী জানতে পারে এটি নকল মূর্তি। এ বিষয়ে ভূক্তভোগী তরিকুল ইসলাম রবিবার র‌্যাবকে জানালে রাতেই তাদের আটক করে র‌্যাব।

নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন বলেন, গ্রেফতারকৃতরা একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্য। তারা দেশের বিভিন্ন এলাকার লোকজনকে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে সোনালী রংয়ের পুতুলকে স্বর্ণের পুতুল বলে প্রতারণার মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী সিংড়া থানায় তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা দায়ের করেছেন।

ইত্তেফাক/এআই