বুধবার, ০৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৯ আশ্বিন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার আগের ও পরের পরিস্থিতি জানতে হবে: আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৩:১৯

জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি বলেছেন, অতীতের চেয়ে মানুষ এখন অনেক সচেতন বলে অধিকার আদায় ও ভোগ করার কাজটি সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে হবে। এলাকায় যে উন্নয়ন হয় তার যথাযথ মান নিশ্চিত করতে জনগণ ও রাজনীতিবিদদের সজাগ ও সক্রিয় থাকা প্রয়োজন। পাশাপাশি নতুন প্রজন্মকে পরাধীনতা ও স্বাধীনতার পার্থক্য খেয়াল করতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবার পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, আজ (মঙ্গলবার) কাউখালীবাসীর জন্য একটি আনন্দের দিন। কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণের যে নতুন কাজ শুরু হলো তাতে এই উপজেলা অনেকটা রাহুমুক্ত হচ্ছে। সকলের সহযোগিতা ও উদ্যোগে এই কাজের বাধা অতিক্রম হচ্ছে। নতুন যে ভবন তৈরি হচ্ছে তার জন্য আল্লাহর কাছে অসীম শুকরিয়া জানাই। ১৪ বছর আগে এই কাজ শুরু হয়ে আংশিক সম্পন্নের পর বন্ধ হয়ে গিয়েছিল মহল বিশেষের নেতিবাচক মনোভাবের কারণে। ঐ মহলটি কাজ শুরু করেও তা বন্ধ রাখে। সরকার অনেক কিছু করতে চায়, কিন্তু ক্ষমতাশালী মহল বিশেষ করে ঠিকাদারের অসযোগিতার কারণে আমরা আমাদের এই উপজেলার স্বাস্থ্যসেবায় দীর্ঘকাল ধরে দুর্ভোগের মধ্যে রয়েছি।

কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আছেন বলেই আমরা ভাগ্যবান। তার ঐকান্তিক ইচ্ছা এবং সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মরহুম মোহাম্মদ নাসিমের অসীম আগ্রহে নতুন করে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি উন্নতমানের হাসপাতাল ভবন নির্মাণ করতে আমরা সক্ষম হচ্ছি। ২৫ কোটি টাকার ঊর্ধ্বের বড় বরাদ্দ নিয়ে বহুতলবিশিষ্ট একটি হাসপাতাল ভবনের নির্মাণকাজ কাউখালীতে শুরু হলো। এই কমপ্লেক্সে লিফট-সংবলিত, রোগীদের জন্য অবকাঠামো, ডাক্তার ও নার্সদের জন্য ডরমেটরি ভবন নির্মাণ হবে। এর জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিশেষ কৃতজ্ঞ। আমাদের প্রধানমন্ত্রী দিনের বেশির ভাগ সময় মানুষের জন্য কাজ করেন। আমার অহংকার ছিল, আমিই বোধ হয় দিনের বেশি সময় ধরে কাজ করি। কিন্তু যখন দেখলাম, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু দিনেই নয়, রাতদুপুর পর্যন্ত কাজ করেন, তখন আমার ধারণা ভেঙে গেল।

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আরো বলেন, হাসপাতালের ডাক্তার, নার্সরা মানুষের সেবামূলক কাজে নিয়োজিত। তাদের এই মহান পেশাকে অসহায়, দরিদ্র ও দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্তদের জন্য নিবেদন করতে হবে। জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সরকারি কর্মকর্তারা বিদেশি নন। স্বাধীনতার আগে বিদেশিরা এখানে সরকারি কাজে নিয়োজিত থাকতেন। তখন কোনো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে তৃণমূলে এসে মানুষের খোঁজখবর নিতে দেখা যেত না। সে সময়ের সঙ্গে এখনকার পার্থক্য হচ্ছে এখন মন্ত্রী-এমপিরা, বড় বড় সরকারি কর্মকর্তারা গ্রামে এসে মানুষের খোঁজখবর নেন, জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে পরিশ্রম করেন।

তিনি আরো বলেন, এ দেশ আমাদের সকলের। ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। ক্ষমতায় কেউ আসবেন কেউ চলে যাবেন। আল্লাহ মানুষকে ক্ষমতা দেন তাদের ইমান পরীক্ষার জন্য। রাজনীতি মানে মানুষের কল্যাণ। ভবিষ্যতে যারা নেতৃত্ব ও দেশ পরিচালনায় আসবেন, তাদের মনে রাখতে হবে উন্নয়ন কাজে বরাদ্দকৃত অর্থ যাতে সদ্ব্যবহার হয়। নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতা ও পরাধীনতার তফাত উপলব্ধি করা বাঞ্ছনীয়। অনেক সময় আমরা কাঙ্ক্ষিত কাজ শেষ করতে পারি না। ঠিকাদার, প্রশাসন, প্রকৌশলী সবাইকে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ সম্পন্ন করতে হবে। এক্ষেত্রে কমিশন খাওয়ার প্রবণতা বন্ধ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. খালেদা খাতুন রেখার সভাপতিত্বে আরো বক্তৃতা করেন পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ হাসানাত ইউসুফ জাকি, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেন, কাউখালী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা জেপির সভাপতি মো. আবু সাঈদ মিয়া মনু, উপজেলা আওয়ামী লীগে সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে এম আব্দুল শহীদ ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুজন সাহা। এ সময় মঞ্চে ছিলেন কাউখালী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মৃদুল আহমেদ সুমন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান পল্টন, সহসভাপতি সুনীল কুন্ড, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রশীদ মিল্টন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজাদী রেবেকা শাহীন চৈতী, উপজেলা জেপির সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল মাহফুজ পায়েল, শিয়ালকাঠি ইউপি চেয়ারম্যান সিকদার দেলোয়ার হোসেন, চিড়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান লায়েকুজ্জামান তালুকদার মিন্টু, সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান, আমড়াজুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে নির্মাণাধীন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এ সময় তিনি দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন।

এছাড়া তিনি কাউখালী উপজেলার আমড়াজুড়ি ফেরিঘাটে নদীভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেন। এরপর মাগুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সুবিদপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের শুভ উদ্বোধন করেন। বিকালে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু কাউখালী উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় ইসলামি কমপ্লেক্স ভবনের স্থান পরিদর্শন করেন।

এরপর তিনি কাউখালী চিড়াপাড়া ব্রিজের দক্ষিণ পাশে এলজিইডির একটি প্রকল্পের আওতায় চিড়াপাড়ার সড়ক ও জনপথের রাস্তা থেকে চিড়াপাড়া জেএম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভায়া ডুমজুড়ি পর্যন্ত সড়ক উন্নয়নকাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

ভাণ্ডারিয়া সংবাদদাতা শঙ্কর জীত্ সমাদ্দার জানান, জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি গতকাল রাতে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়নের মঞ্জু মার্কেট-সংলগ্ন জাতীয় পার্টি-জেপির দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন। এখানে তিনি বক্তব্য রাখেন। ইউনিয়ন জেপির সভাপতি রেজা আহমেদ দুলারের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা পার্টির সভানেত্রী আসমা আক্তার, জেপির উপজেলা সহসভাপতি ও গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান চৌধুরী, ইউনিয়ন জেপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাব্বির, ইউনিয়ন জেপির সহসভাপতি অরূপ চন্দ্র চক্রবর্তী, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাওলাদার, উপজেলা যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক মামুন সরদার প্রমুখ।

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি গতকাল দুপুরে ভাণ্ডারিয়ার চড়াইল গ্রামে সম্প্রতি প্রয়াত পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ হাকিম হাওলাদারের কবর জিয়ারত ও ফাতেহা পাঠ করেন। এ সময় তিনি মরহুম হাকিম হাওলাদারের স্ত্রী নাসরিন আক্তার ঝর্ণা ও ভ্রাতুষ্পুত্র নূরুল আহসান মিল্টনসহ স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেন এবং সমবেদনা জানান। এরপর ভাণ্ডারিয়ার লক্ষ্মীপুর গ্রামে সম্প্রতি প্রয়াত উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুল আজিজ সিকদারের কবর জিয়ারত ও ফাতেহা পাঠ করেন। এ সময় তিনি মরহুমের পুত্র কামাল উদ্দিন সিকদারসহ আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন।

গতকাল কাউখালী উপজেলায় বিভিন্ন কর্মসূচিতে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপির সঙ্গে ছিলেন ভাণ্ডারিয়া উপজেলার জেপির নির্বাহী সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, সিনিয়র সহসভাপতি ও ভাণ্ডারিয়া পৌর কাউন্সিলর গোলাম সরওয়ার জোমাদ্দার, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা জেপির সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম তালুকদার উজ্জল, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা জাতীয় মহিলা পার্টির সভানেত্রী আসমা আক্তার, গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

 

ইত্তেফাক/ইআ