মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বিদিশা এরশাদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ ব্যক্তিগত সহকারীর

আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০২৩, ১৯:৫৬

গাইবান্ধায় সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা এরশাদের বিরুদ্ধে অপহরণ ও নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) জেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন আতিকুর রহমান নামে এক ব্যক্তি। 

সংবাদ সম্মেলনে আতিকুর নিজেকে বিদিশা এরশাদের সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী হিসাবে পরিচয় দেন। এর আগে গাইবান্ধা আমলি আদালতে একই অভিযোগে বিদিশা এরশাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন বলে জানান। ভুক্তভোগী আতিকুর রহমান গাইবান্ধা সদরের কিশামত মালিবাড়ি ধর্মপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে। 

সংবাদ সম্মেলনে আতিকুর রহমান জানান, ২০১০ সালে বিদিশা এরশাদের মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠানে তিনি চাকরি নেন। পরে ‘বিদিশা ফাউন্ডেশন’ এ যোগদান করেন। ২০১৬ সালের শেষের দিকে বিদিশা  গাইবান্ধায় ইটভাটা চালুর জন্য ৫ বছরের মধ্যে সুদসহ পরিশোধের শর্তে আতিকুরকে ৫ কোটি ২২ লাখ টাকার চেক প্রদান করেন।

আতিকুর অভিযোগ করেন, গত ৭ মার্চ বিদিশা এরশাদ প্রাইভেটকারে করে অস্ত্রধারী লোকজনসহ তাকে গাইবান্ধার ইটভাটা থেকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গুলশানের বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে তাকে আটকে রেখে  মারধর করে ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ৩০-৩৫টি ১০০ টাকার নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর, নগদ এক লাখ টাকা, মানিব্যাগে থাকা ড্রাইভিং লাইসেন্স, বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএম কার্ড, তার স্ত্রী ও বাবার নামে ইস্যুকৃত চেকবইয়ের পাতা জোরপূর্বক নিয়ে নেওয়া হয়। 
    
তিনি আরও বলেন, বিদিশা ও তার লোকজন গত ৭ মার্চ থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত ১০ দিন তাকে আটকে রেখে অমানুষিক নির্যাতন চালায়। এরপর তাকে ছেড়ে দিতে তার ভাই আসাদুজ্জামান মিথেনকে ডেকে নিয়ে  বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় আটকে রেখে তার ওপর অমানুষিক নির্যাতন চালায়। দুই ভাইকে ছেড়ে দিবে বলে তার বৃদ্ধ বাবা মোহাম্মদ আলী সরকারকেও ঢাকায় ডেকে নেন। এরপর বিদিশার বাসার দ্বিতীয় তলায় তিনজনকে আটকে রাখেন। এরপর গত ১৭ মার্চ আতিকুর এবং তার বাবা ও ভাইকে বিদিশা ও তার লোকজন গাইবান্ধার ইটভাটায় নিয়ে আসে। এ সময় শাহজাদা নামে এক ব্যক্তিকে ইটভাটার দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে যাবতীয় কাগজপত্র ও বিদিশা এরশাদকে পরিশোধ করা ১ কোটি ৫৬ লাখ ৬০ হাজার টাকার রিসিভ কপিগুলোও নিয়ে নেয়। 

আতিকুর আরও বলেন, বর্তমানে বিদিশার নির্দেশে শাহজাদা জোরপূর্বক ইটভাটা দখল করে আছে। নিরুপায় হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় বিষয়টি জানালে আমলে না নেওয়ায় পরে গাইবান্ধার আমলি আদালতে বিদিশা এরশাদ, তার সহযোগী মোরশেদ মঞ্জুর, মেজর আনিছ ও শাহজাদাকে অভিযুক্ত করে গত ২৮ মার্চ মামলা করেন।

ইত্তেফাক/এবি/পিও