বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

যৌন নিপীড়নের শিকার পুরুষদের জন্য হটলাইন চালু জাপানে

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৬:৫৭

পুরুষদের প্রভাবশালী ব্যান্ড এজেন্সি জনি অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটেসের যৌন কেলেঙ্কারির চমকপ্রদ তথ্য প্রকাশের পর জাপান সরকার যৌন নির্যাতনের শিকার পুরুষদের জন্য হটলাইন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেশটির এক মন্ত্রী গত মঙ্গলবার এ ঘোষণা দিয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) দেশটিতে যৌন নিপীড়নের শিকার পুরুষদের জন্য এ হটলাইন চালু হওয়ার কথা। আগামী তিন মাস এটি চালু থাকবে। এর মাধ্যমে নিপীড়নের শিকার কিশোর ও পুরুষেরা ফোন করে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারবেন।

জাপানের শিশুনীতি প্রণয়নের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রী আয়ুকো কাতো বলেন, ‘আমরা আশা করছি, নিপীড়নের শিকার পুরুষেরা এতে নিরাপদ বোধ করবেন এবং তারা কোনো দ্বিধা ছাড়াই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারবেন।’ তিনি জাপানিদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরিতে সরকারের গভীর প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন।

যদিও জাপান সরকার বলেছে হটলাইনটি পুরুষ এবং মহিলা উভয়ের জন্য ২৪ ঘণ্টা সেবা দিবে, তবে এটি ব্যবহারে পুরুষদের অনিহা থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

২০১৯ সালে ৮৭ বছর বয়সে কিতাগাওয়ার মৃত্যু হয়। তার মাধ্যমেই এসএমএপি, টোকিও ও আরাশির মতো জনপ্রিয় মেগাগ্রুপ জে-পপ ব্যান্ডগুলো তৈরি হয়েছে। পুরো এশিয়াজুড়েই এসব ব্যান্ড দলের ভক্ত আছে।

গত মাসে এক তদন্তে জানা গেছে, ছয় দশকের ক্যারিয়ারে সংগীতশিল্পী হওয়ার আশায় তার কাছে আসা শত শত কিশোর ও তরুণের ওপর কিতাগাওয়া যৌন নিপীড়ন চালিয়েছেন।

এ ঘটনা নিয়ে চলতি বছরের আগে খুব বেশি তদন্ত হয়নি। গত মার্চে বিবিসি এ–সংক্রান্ত একটি প্রামাণ্যচিত্র সম্প্রচার করে। ভুক্তভোগী জে-পপ তারকাদের নিপীড়নের অভিজ্ঞতা প্রচারের পর নড়েচড়ে বসে জাপানের প্রশাসন।

কিতাগাওয়ার মৃত্যুর পর জনি অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের প্রধান হন তার ভাগনি জুলি ফুজিশিমা। তবে জনদাবির মুখে চলতি মাসের শুরুতে তাকে পদত্যাগ করতে হয়। তার মামার যৌন নিপীড়ন চালানোর কথা প্রকাশ্যে স্বীকার করার পর তিনি পদত্যাগ করেন। তার স্থলাভিষিক্ত হন দেশটির সংগীত তারকা, অভিনেতা ও জনপ্রিয় গ্রুপ শোনেনতাইয়ের সদস্য নরিয়ুকি হিগাশিয়ামা।

ইত্তেফাক/এসএটি