সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সামান্য বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় সড়ক, জনদুর্ভোগ চরমে

আপডেট : ১১ মে ২০২৪, ২১:১৯

শিল্পাঞ্চল সাভার ও আশুলিয়ায় এক ঘণ্টার ভারী বৃষ্টিতে বিভিন্ন সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে চলাচলে বিঘ্ন ঘটনার পাশাপাশি খানাখন্দ যুক্ত সড়কে কর্মজীবী মানুষের চলাচলে ব্যাপক দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

শনিবার (১১ মে) সকালে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় গিয়ে দীর্ঘ যানজটের চিত্র দেখা গেছে। 

এ সময় রিকশা নিয়ে শাখা সড়ক দিয়ে ইউনিক এলাকায় গিয়ে দেখা যায় পুরো সড়কটি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। কোথাও কোথাও পানি সড়ক ছাপিয়ে ঢুকে পড়েছে রাস্তার পাশে থাকা বিভিন্ন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠান ও বাসাবাড়িতে।

স্থানীয়রা জানান, সারাবছরই বাইপাইল-আব্দুল্লাহপুর সড়কটি পানিতে তলিয়ে থাকে। শনিবার সকালে বৃষ্টির কারনে সড়কের কোনো কোনো স্থানে হাটু জমে গেছে। বিভিন্ন সময় ময়লা পানির কারণে আমাদের শরীরে চুলকানিসহ চর্মরোগ দেখা দেয়।

অপর গার্মেন্টস কর্মী আল-আমিন বলেন, ময়লা পানির জন্য আমাদের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। বিভিন্ন সময় পড়ে রিকশা উল্টে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়তে হয়। একই কথা জানালেন নারী শ্রমিক শিল্পি বেগম। তাদের সকলের দাবি দ্রুত সময়ের মধ্যে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ সড়কটি উঁচু করা হোক।
  
সড়কের পাশে দোকানি শরিফুল হক জানান, সবসময় পানি জমে থাকার কারণে পিচঢালা সড়কের পরিবর্তে ইট সলিং করে বানানো সড়কে খানাখন্দের অভাব নেই। প্রায়ই রিকশা-ভ্যান উল্টে ঘটছে দুর্ঘটনা। বছরের পর বছর ধরে এমনটা চলে আসলেও দেখার যেন কেউ নাই। এ ছাড়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের প্রকল্পে ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ সড়কটি মেরামত করা হবে বলে শুনেছি সেটারও কোনো খবর নাই। 

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বলেন, দোকানের সামনে প্রায় সময় হাঁটুপানি থাকায় ময়লা পানি মারিয়ে কাস্টমার না আসায় ব্যবসায় ধস নেমেছে।
 
এলাকাবাসীর অভিযোগ, কলকারখানা ও বাসা বাড়ির বর্জে ড্রেনেজ ব্যবস্থা বিকল হওয়ায় বছরের প্রথম ভারী বৃষ্টিতে বাইপাইল-আব্দুল্লাহপুর সড়কে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের দাবি জানিয়েছেন। 

ইত্তেফাক/পিও