বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

রোমে নতুন করে আরো ৫ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত 

সকল বাংলাদেশিকে করোনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত
রোমে নতুন করে আরো ৫ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত 
রোমের ফিউমিচিনো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। ছবিঃ সংগৃহীত

ইতালির রাজধানী রোমে নতুন করে আরো ৫ বাংলাদেশির শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জন সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে এসেছে। এমতাবস্থায় রাজধানী রোমের বিভাগীয় অঞ্চল লাতসিওতে বসবাসরত সকল বাংলাদেশীদের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। এছাড়াও রোমের বিমানবন্দরে ইউরোপ ব্যতীত সকল দেশ থেকে আগতদের করোনা পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সরকার।

জানা যায়, সম্প্রতি বাংলাদেশীদের থেকে দেশটিতে নতুন করে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পরায় উদ্বিগ্ন দেশটির জনগণ। এছাড়াও বাংলাদেশীদের মধ্যে বেশীরভাগ প্রবাসীই হোমকোয়ারেন্টাইন মানছেন না বলে খবর প্রকাশ করছে স্থানীয় গণমাধ্যম। তাই লাতসিওর কাউন্সিলর আলেসসিও দি আমাতর নির্দেশে লাতসিওতে বসবাসরত সকল বাংলাদেশীদের বাসায় গিয়ে করোনা পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়। এছাড়াও বিমানবন্দরে বাংলাদেশ থেকে আসা সকল যাত্রীদের নজরদারিতে রেখে করোনা পরীক্ষা করার নির্দেশ দেয়া হয়।

এবিষয়ে লাতসিওর কাউন্সিলর আলেসসিও দি আমাতো স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ‘রোমে যেন নতুন করে আর করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে না পড়ে সেবিষয়ে সকল ধরনের পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছি আমরা। ইতোমধ্যে এখানে বসবাসরত সকল বাংলাদেশীদের বাসায় গিয়ে করোনা পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়াও রোমের ফিউমিচিনো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সকল নিরাপত্তা কর্মীদের নির্দেশ হয়েছে যাতে বাংলাদেশীদের কঠোর নজরদারিতে রেখে করোনা পরীক্ষা করা হয়। এছাড়াও ইউরোপ ব্যতীত অন্য কোন দেশ থেকে আসা কোন যাত্রী যদি দুই সপ্তাহের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে বাহিরে ঘোরাফেরা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিবে লাতসিও প্রশাসন’।

আরো পড়ুনঃ অসংক্রামক জটিল রোগীদের চিকিৎসা প্রদানের নির্দেশ

এছাড়াও তিনি আরও বলেন, ‘ঘনবসতিপূর্ণ বাংলাদেশে বর্তমানে অনেকেই করোনায় আক্রান্ত । দেশটির বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে গেছে। দেশটির বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন না করায় বিগত দিয়ে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী করোনা ভাইরাস আক্রান্ত অবস্থায় দেশটির ইমিগ্রেশন পাড় হয়ে এদেশে এসেছে এবং ভবিষ্যতেও আসতে পারে। তাই আমরা নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

এদিকে দেশটিতে গতকাল নতুন করে আরও ছয় বাংলাদেশীর শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে। এরমধ্যে পাঁচজনই রোমের বাসিন্দা। এদের মধ্যে তিনজন কিছুদিন আগে বাংলাদেশ থেকে ইতালি ফিরেছে বলে জানা গেছে। এনিয়ে দেশটিতে বর্তমানে বাংলাদেশ ফেরত ও তাদের দ্বারা সংক্রমিত করোনা রোগীর সংখ্যা ১৭ জন। আর দেশটিতে অন্যান্য দেশ থেকে করোনা ভাইরাস বহন করে নিয়ে আসা রোগীর সংখ্যা প্রায় চল্লিশ জন।

এ বিষয়ে রোমে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী এম কে রহমান লিটন বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশীরা অনেকেই আইন মানি না। দেশ থেকে এসে বেশীরভাগ মানুষই হোমকোয়রেন্টাইন না মেনে বাহিরে ঘোরাফেরা করছেন। আবার কেউকেউ এসে কাজেও যোগ দিয়েছিলেন। যার ফলে রোম প্রশাসন এখানের সকল বাঙ্গালীদের করোনা পরীক্ষা করবে। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক। মনে করেন, আমাদের ভবনে আমরাই শুধুমাত্র বাংলাদেশী পরিবার। এখন যদি পুলিশ এসে শুধু আমাদের করোনা পরীক্ষা করে তাহলে অন্যান্য বাসিন্দারা আমাদের নিয়ে সমালোচনা করবে। আমাদের দেখলে এড়িয়ে চলবে। যেটা আমাদের জন্য অত্যন্ত কষ্টকর হবে। এটা যদি সকল দেশের নাগরিকদের জন্য হত তাহলে কোন সমস্যা ছিলনা’।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত