ঢাকা শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬
৩৪ °সে


রাজশাহীতে বিজয় দিবসে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বিনির্মাণের অঙ্গীকার

রাজশাহীতে বিজয় দিবসে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বিনির্মাণের অঙ্গীকার
বিজয় দিবস উপলক্ষে রাজশাহী মুক্তিযোদ্ধা স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজের আয়োজন করে জেলা প্রশাসক। ছবি: ইত্তেফাক

রাজশাহীতে বিনম্র শ্রদ্ধায় বিজয় দিবস উদযাপিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনার, ভুবনমোহন পার্ক শহীদ মিনার, রাজশাহী কোর্ট শহীদ মিনার ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ শহীদ মিনারসহ সর্বত্র মহান বিজয় দিবসের শ্রদ্ধা জানাতে আবাল বৃদ্ধ বণিতার ঢল নামে।

জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ১৬ ডিসেম্বর প্রথম প্রহর এবং রবিবার ভোর থেকেই হাজার হাজার মানুষ ফুল নিয়ে জড়ো হন শহীদ মিনারগুলোতে। সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ শহীদ মিনারে ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে ধর্মনিরপেক্ষ ও অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বিনির্মাণের অঙ্গীকার করেন।

রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনারে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে দলের নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। সকালে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নগরীতে বিজয় র‌্যালি বের করা হয়। অন্যদিকে বিএনপি নেতা ও সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু ও মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নেতৃত্বেদলের নেতাকর্মীরা রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। ওয়ার্কার্স পার্টিও সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার নেতৃত্বে দলীয় নেতাকর্মীরা নগরীর ভূবনমোহনপার্ক শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

আরো পড়ুন: পুলিশের উপর হামলা, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতিসহ আটক ৪

এদিকে উপাচার্য প্রফেসর আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা ও প্রফেসর ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়ার নেতৃত্বে শিক্ষক-কর্মকর্তারা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে, উপাচার্য প্রফেসর মো. রফিকুল ইসলাম শেখ এর নেতৃত্বে নিজস্ব শহীদ মিনারে রুয়েট শিক্ষক কর্মকর্তারা, রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডা. মাসুম হাবিব এর পক্ষে কর্মকর্তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ শহীদ মিনারে, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মো. নূর-উর রহমান, রেঞ্জ ডিআইজি মো. খুরশীদ হোসেন, জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের, পুলিশ সুপার মো. শহীদুল্লাহর নেতৃত্বে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

এছাড়া কুচকাওয়াজ, প্রীতি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, বিজয় র‌্যালি, আলোচনা সভা, চিত্র প্রদর্শনী, বিশেষ দোয়া, হাসপাতাল ও কারাগারসহ বিভিন্ন বিশেষ প্রতিষ্ঠানে উন্নত খাবার পরিবেশন করা হয়।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন