অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ ২ সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী আটক

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ ২ সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী আটক
নিহতদের একপলক দেখতে জনতার ভিড়। ইনসেটে ঘাতক স্বামী আবদুর রাজ্জাক। ছবি: ইত্তেফাক

রংপুরে স্বামীর হাতে খুন হয়েছেন অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ দুই সন্তান। রবিবার সকালে নগরীর বাহার কাছনাস্থ (কাচনার দোলা) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘাতক ব্যক্তির নাম আবদুর রাজ্জাক। পেশায় তিনি অটোরিকশার চালক ও মাদকাসক্ত। এ ঘটনায় পুলিশ তাকে আটক করেছে।

নিহতরা হলেন- স্ত্রী তাসনিয়া আক্তার রত্না (৩৫), কন্যা সন্তান নিহা (৩) ও এক বছরের শিশু সন্তান নিশাদ।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বাড়িতে ঝগড়ার এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে রাজ্জাক। রত্না সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। এরপর কন্যা নিহা ও ছেলে নিশাদকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার পর গলা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করে রাজ্জাক।

স্থানীয়রা আরও জানিয়েছেন, প্রায়ই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় তিনি স্ত্রীকে মারধর করতেন।

খবর পেয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালী, মাহিগঞ্জ ও হারাগাছ থানার পুলিশ এবং র‌্যাব-১৩ সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসে। ঘটনাস্থল থেকে আবদুর রাজ্জাককে আটক করা হয়েছে বলে র‌্যাব-১৩ রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ) কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনান জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: নিউইয়র্কে মাহবুবুল হক শাকিলকে স্মরণ

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আব্দুর রাজ্জাককে আটক করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, নেশাগ্রস্ত অটোরিকশা চালক পারিবারিক কলহের জেরে এমন ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারেন।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত