রাজশাহীতে গোপন বৈঠকের সময় জামায়াতের ১০ নেতাকর্মী গ্রেফতার

রাজশাহীতে গোপন বৈঠকের সময় জামায়াতের ১০ নেতাকর্মী  গ্রেফতার
গোপন বৈঠকের সময় গ্রেফতারকৃত জামায়াতের নেতাকর্মী।ছবি: ইত্তেফাক

রাজশাহীর একটি স্কুল থেকে ১০ জামায়াত নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নগরীর সাহেব বাজার এলাকার একটি স্কুলের কক্ষে গোপন বৈঠকের সময় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তাদের গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে মহানগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানিয়েছেন।

তিনি জানান, জামায়াত নেতাদের গোপন বৈঠকের সংবাদের ভিত্তিতে মহানগরীর সাহেব বাজার বড় মসজিদ এলাকার মিশন একাডেমিতে বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ। এসময় তারা সেখানকার একটি কক্ষের গোপন বৈঠক থেকে ১০ জামায়াত নেতাকর্মীকে আটক করেন। তাদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, আগামীকাল বুধবার ঢাকার যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে টিপু রাজাকারের রায়কে কেন্দ্র করে সহিংসতার পরিকল্পনা করছিলেন গ্রেফতারকৃত জামায়াত নেতাকর্মীরা।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তারা এজাহারভুক্ত পলাতক আসামি। তাদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামালা রয়েছে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন: খুবিতে প্লেজারিজম চেকার সফটওয়্যার ব্যবহারে ওরিয়েন্টেশন

উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় রাজশাহীর বোয়ালিয়ার মো. আব্দুস সাত্তার ওরফে টিপু সুলতানের মামলার রায় বুধবার ঘোষণা করবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল রায়ের জন্য ১১ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন। মামলায় ছয়জনের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় ১০ জনকে হত্যা, নির্যাতন, আটক, অপহরণ ও লুণ্ঠনের অভিযোগ রয়েছে। তবে আসামির ৫ জন যথাক্রমে মনো, মজিবর, রশিদ সরকার, মুসা ও আবুল আগেই মারা যান। মুক্তিযুদ্ধের সময় টিপু সুলতান জামায়াতে ইসলামীর ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র সংঘের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ১৯৮৪ সালের পর সরাসরি তার রাজনৈতিক সম্পৃক্ততা না থাকলেও জামায়াত সমর্থক ছিলেন। তিনি ১৯৮৪ সালে নাটোরের লালপুর উপজেলার গোপালপুর ডিগ্রি কলেজে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে যোগ দেন। এরপর ২০১১ সালে অবসরে যান তিনি।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত