ঢাকা শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
২৬ °সে

বগুড়ায় সর্দি জ্বরে আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু, ১৫ বাড়ি লকডাউন

বগুড়ায় সর্দি জ্বরে আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু, ১৫ বাড়ি লকডাউন
ছবি: গুগল ম্যাপ থেকে

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার পর উপজেলা প্রশাসন শনিবার সেখানকার ১৫টি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছেন।

নিহত ব্যক্তির স্ত্রীর তথ্য মতে জানা গেছে, গাজীপুর থেকে বাড়ি ফিরে তার স্বামী সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত হন। স্থানীয় চিকিৎসকদের পরামর্শে ওষুধ খাচ্ছিলেন। গত শুক্রবার (২৭ মার্চ) রাতে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে নিতে প্রতিবেশীদের সহযোগিতা চেয়ে পাননি। পরে অ্যাম্বুলেন্সের জন্য মুঠোফোনে যোগাযোগ করেন জেলা ও উপজেলার হাসপাতাল, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশে। কিন্তু সারা রাতে কোথাও থেকে তিনি কোনো সাড়া পাননি।

পরে ফোন করেন শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের হটলাইনে।

শনিবার হটলাইনে বিষয়টি জানার পর শেষে এগিয়ে আসেন মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. শফিক আমিন কাজল। তিনি বিষয়টি জেলা সিভিল সার্জন ডা. গউসুল আজিম চৌধুরী ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তীকে জানান। পরে সিভিল সার্জন একজন চিকিৎসা কর্মকর্তাকে ওই ব্যক্তির বাড়িতে পাঠান।

আরও পড়ুন: হাওরের বোরো ধান কি এবার কৃষকের গোলায় উঠবে?

বগুড়ার সিভিল সার্জন ডা. গাওসুল আজিম চৌধুরী জানান, আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের প্যাথলজি বিভাগের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠাতে বলেছেন। সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

শিবগঞ্জের ইউএনও আলমগীর কবির জানান, ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। গত মঙ্গলবার তিনি গ্রামের বাড়ি আসেন। তার সর্দি-কাশি এবং গায়ে জ্বর ছিল। শনিবার সকালে তার অসুস্থতার খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে একজন চিকিৎসককে পাঠানো হয়। চিকিৎসক গিয়ে সেখানে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। ইউএনও আলমগীর কবির বলেন, যেহেতু ওই ব্যক্তির মধ্যে করোনার উপসর্গ ছিল সে কারণে তার নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ওই ব্যক্তির বাড়ির আশপাশের ১৫টি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৯ মে, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন