দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ

দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ
দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ।ছবি: ইত্তেফাক

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) থেকে আপাতত পেঁয়াজের চালান আর আসবে না বলে জানা গেছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই প্রতি কেজি ৪০ টাকার পেঁয়াজ এখন ৮০ থেকে ৮৫ টাকা দরে কিনতে হচ্ছে। কৃত্রিম সংকট ধরাতে ও বেশি লাভের আশায় কেউ কেউ গুদামজাত করছে বলেও খবর শোনা যাচ্ছে।

দর্শনা সিএন্ডএফ এজেন্ট ও আমদানিকারক রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, গতকাল সোমবার ১ হাজার ৬৫৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ নিয়ে ভারতের একটি ইনজিনসহ র‌্যক(৪২ওয়াগন) দর্শনা বন্দরে প্রবেশ করে। ভারতীয় পেঁয়াজ ভর্তি ৪২ টি ওয়াগনের মধ্যে ১০টি ওয়াগন দর্শনা বন্দরে খালাস করা হয়, বাকি ওয়াগন নওয়াপাড়ার উদ্দেশ্য পাঠানো হয়।

রফিকুল ইসলাম আরও জানান, আজ মঙ্গলবার থেকে আপাতত ভারত থেকে দর্শনা হয়ে পেঁয়াজ রপ্তানি করবে না বলে ভারতীয় সিএন্ডএফ এক পত্রে আমাদেরকে জানিয়েছে। দর্শনা সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রহমান হাবু জানান, ভারতীয় সিএন্ডএফ এর পক্ষ থেকে আমাদের এ খবরটি জানানো হয়েছে।

দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলস্টেশনের সুপারিনটেনডেন্ট মীর লিয়াকত হোসেন বলেন, ‘চলতি বছরের এপ্রিল মাস থেকে সেপ্টেম্বরের ১৪ তারিখ পর্যন্ত ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি অব্যাহত রয়েছে। তবে ভারত থেকে পেঁয়াজ আসবে না এমন কোন নির্দেশনা কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে জানায়নি।’

আরও পড়ুন: জেএমবি ক্যাডার ও ছাত্রলীগ নেতা হত্যার আসামি এখন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা!

দর্শনা শুল্ক স্টেশনের এসি (সহকারী কমিশনার) জাহাংগীর হোসেন জানান, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমাদের জানায়নি, তবে বিভিন্ন মাধ্যমে খবরটি শুনেছি।

কিন্তু ভারত থেকে পেঁয়াজ আসা বন্ধের কথা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এ এলাকার হাটবাজারে যে পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা প্রতি কেজি বিক্রি করতে দেখা গেছে, সে পেঁয়াজ মঙ্গলবার ৮০ থেকে ৮৫ টাকাই বিক্রি হচ্ছে বলে ক্রেতা হাবলু ও তরিকুল ইসলাম জানান।

পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে কি ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দিলারা রহমান বলেন, ‘বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাছাড়া বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য মনিটরিং ব্যবস্থা চলমান রয়েছে।’

ইত্তেফাক/এএএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত