স্কুলছাত্রী নীলা হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডে ঘাতক মিজান
স্কুলছাত্রী নীলা হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন
নীলা রায়ের শাস্তির দাবিতে সাভারে সর্বস্তরের মানুষের মানববন্ধন।ছবি: ইত্তেফাক

চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্রী নীলা রায়ের হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে রাস্তায় দাড়িয়ে মানববন্ধন করেছেন সাভারের সর্বস্তরের মানুষ। সাভার নাগরিক কমিটির আয়োজনে শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের গেন্ডা বাসস্ট্যান্ডে উপজেলা গেইটের সামনে মুখে মাস্ক পড়ে শতশত মানুষ এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন-স্থানীয় সাংসদ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী, বিভিন্ন স্তরের জনপ্রতিনিধি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্কুল কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। দলমত নির্বিশেষে সকলেই নীলা রায়ের খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

এদিকে শুক্রবার রাতে নীলার হত্যাকারী কিশোর গ্যাং সদস্য মিজানকে গ্রেফতারের পর শনিবার ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হলে আদালত ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

মানববন্ধনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান বলেন, ‘নীলা হত্যার ঘটনাটি আমাদের জন্য যেমন দুঃখজনক, তেমনি সরকারের জন্যও বিব্রতকর। তাই সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে নির্দেশনা এসেছে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন। ’

হত্যাকারীদের কোন ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন স্থানে মানুষ হত্যা করে ঘাতকরা সাভার ও আশুলিয়া নিরাপদ স্থান ভেবে এখানে ফেলে যায়।’ এসময় তিনি ব্যাংক কলোনী এলাকার একটি কিশোর গ্যাং লিডারের পিতা পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরুকে দ্রুত দল থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দেন।

সাভার নাগরিক কমিটির সভাপতি কৃষিবিদ ড. রফিকুল ইসলাম মোল্লার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব, পৌর মেয়র আব্দুল গণি, প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম মানিক মোল্যা, নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন খান নঈম, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম সমর, ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরে আলম সিদ্দিকী নিউটন, আয়নাল হক গেদু, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি শওকত আলী মাহমুদ, সাভার প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ আচার্য্য ও পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ দাস প্রমুখ।

আরও পড়ুন: প্রাইভেট পড়া শেষে আর বাড়ি ফেরেনি যুবায়ের, চার দিন ধরে নিখোঁজ

এদিকে হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ সাজা নিশ্চিত করা হবে জানিয়ে দুপুরে সাভার মডেল থানায় এক সংবাদ সম্মেলন করেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার।

পুলিশ সুপার জানান, গত ২০ তারিখ সন্ধ্যায় দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী নীলা রায় বাসার ফেরার পথে ঘাতক মিজানুর রহমান ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক তাদের পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এঘটনায় নিহতের বাবা নারায়ন রায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করলে আমরা আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করি। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা মামলার তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছি। সর্বশেষ শুক্রবার রাতে সাভারের রাজফুলবাড়িয়া এলাকা থেকে মামলার প্রধান আসামি মিজানুরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার তথ্য মতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি ও রক্তমাখা জামা উদ্ধার করি। বিষয়টি আরও গভীরভাবে তদন্ত এবং ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য মিজানকে ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডে আনা হয়েছে। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে বাকী আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চালানো হবে বলেও জানান তিনি।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত