বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সবজি চাষ করে সফল ৫ হাজার নারী

আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৯:৪৮

ছিলেন অস্বচ্ছল, দিন এনে দিনে খায় গোছের। সেখান থেকে আলোর মুখ দেখেছেন কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের ৫ হাজার নারী। বাড়ির পরিত্যক্ত জমিতে বিভিন্ন জাতের সবজি চাষ করে পরিবারের ভাগ্য বদল করেছেন তারা। এনজিও সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সহায়তায় এমন উদ্যামী কাজ করেছেন ঐ এলাকার নারীরা। সংস্থাটি এসব নারীর কাছে বিতরণ করেছে সবজির বীজ, দিয়েছে প্রশিক্ষণ ও অর্থ-সহায়তা।

সবজি চাষে ভাগ্য বদল হয়েছে এমন একজন নারী মাহমুদা আক্তার। সত্তরোর্ধ্ব এ নারী বলেন, তিন ছেলে থাকলেও তারা আলাদা হয়ে থাকে। পিতা-মাতার খোঁজ নেয় না। বয়স হয়ে যাওয়ায় স্বামীও কাজ করতে পারেন না। কারো কাছ থেকে অর্থ-সহায়তা পাওয়াও অসম্ভব হয়ে উঠেছে। তবে ওয়ার্ল্ড ভিশনের সহযোগিতায় বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত জমিতে সবজি চাষ করে আজ তিনি স্বাবলম্বী, সংসারে ফিরেছে স্বচ্ছলতা। বাড়ির আঙিনায় লাউ, কুমড়া, করলা, লালশাক, পুঁই, বেগুন, আলু ও টম্যাটোসহ নানা সবজি চাষ করে মাহমুদা আক্তারের মাসে আয় হয় প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। এ মহিলাকে বীজ এবং বাগান তৈরির সরঞ্জাম দিয়েছে ওয়ার্ল্ড ভিশন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ইউএসএআইডির অর্থায়নে ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সহযোগিতায় ইমার্জেন্সি ফুড সিকিউরিটি প্রোগ্রাম (এফএফপি) প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় জনগোষ্ঠীর খাদ্য-নিরাপত্তা এবং পুষ্টির অবস্থার উন্নয়নে কাজ চলছে। পুষ্টি চাহিদা ও খাদ্যের গুণগত মান এবং দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে পিছিয়ে পড়া মানুষদের স্বাবলম্বী করাই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। প্রকল্পের আওতায় কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নে ১ হাজার ৩০২ জন, রাজাপালং ইউনিয়নে ১ হাজার ২৩২ জন, পালংখালী ইউনিয়নে ৯১১ জন ও টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নে ১ হাজার ৩৩ জন ও হ্নীলা ইউনিয়নে ৭৮১ জনসহ মোট ৫ হাজার ২২৯ জন উপকারভোগী নারীকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ সবজিচাষি হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। 

বর্তমানে প্রকল্পের আওতায় চারবার বিভিন্ন ধরনের মৌসুমি (গ্রীষ্ম ও শীতকালীন) উন্নত শাকসবজির বীজ দেওয়া করা হয়েছে। চাষিরা সহায়তা হিসেবে লালশাক, ডাটা, পুঁইশাক, কলমিশাক, পালংশাক, মূলা, লাউ, মিষ্টি কুমড়া, চাল কুমড়া, চিচিঙ্গা, ঝিঙে, ঢেড়স, শসা, পেঁয়াজ, শিম, বরবটির বীজ পেয়েছেন। এছাড়া এসব সবজি চাষ করার জন্য ব্যাক স্প্রে মেশিন, হাত স্প্রে মেশিন, বাঁশের ঝুড়ি, পানির ঝরনা, প্লাস্টিক বালতি, মগ, বসতবাড়ির শাকসবজি ঘেরার নেট, পানির কলসিও দেওয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/ ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন