মা ইলিশ রক্ষায় মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পদ্মায় রাতভর সাড়াশি অভিযান

মা ইলিশ রক্ষায় মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পদ্মায় রাতভর সাড়াশি অভিযান
মা ইলিশ রক্ষায় জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পদ্মায় রাতভর সাড়াশি অভিযান।ছবি: ইত্তেফাক

মা ইলিশ রক্ষায় মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন এর নেতৃত্বে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা সংলগ্ন পদ্মায় রাতভর সাড়াশি অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) দিনগত রাত থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত মা ইলিশ নিধনের অপরাধে ৪০ জেলেকে আটক করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় আনুমানিক ২ লক্ষ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে ধ্বংস করা হয় এবং আনুমানিক প্রায় ২০ কেজি জব্দকৃত ইলিশ মাছ এতিমখানায় বিতরণ করা হয়। 

অভিযানে আরও উপস্থিত ছিলেন-অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সানজিদা ইয়াসমিন, শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আসাদুজ্জামান, আরডিসি মাহবুবুল হক, ম্যাজিস্ট্রেট আল-মামুন, শিবচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম রকিবুল হাসান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবির হোসেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রিপন কান্তি ঘোষ ও শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবুল কালাম আজাদসহ পুলিশের একাধিক দল।

জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, মা ইলিশ রক্ষার্থে ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এ নিষিদ্ধ সময়ে অসাধু জেলেরা পদ্মা নদীতে যাতে ইলিশ শিকার করতে না পারেন সেজন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিদিনই রাত-দিন অভিযান চালানো হয় পদ্মা নদীর শিবচর অংশে।

আরও পড়ুন: মির্জাপুরে করোনা ও বন্যায় ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী পরিবারের মানবেতর জীবন 

মাদারীপুরের সৎ ও সুযোগ্য জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, আমার নেতৃত্বে ‘মা ইলিশ রক্ষায় রাতভর শিবচর সংলগ্ন পদ্মা নদীতে তিনটি ভাগে ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের একাধিক দল সাড়াশি অভিযান চালায়। আমাদের অনুরোধে এ দিন বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারও অংশ নেয়। সাড়াশি অভিযানের কারণে নদীতে মাছ শিকারিদের সংখ্যা কমে এসেছে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারেও ভ্রাম্যমাণ আদালত নজরদারি করছেন। মা ইলিশ রক্ষায় জেলা-উপজেলা প্রশাসন কঠোরভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। 

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত