ঢাকা শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬
২৮ °সে


সিরাজগঞ্জে লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি

সিরাজগঞ্জে লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি
সিরাজগঞ্জ। ছবি: গুগল ম্যাপ থেকে

প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পানির তোড়ে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৯৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে তীরবর্তী নতুন এলাকা প্লাাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন লাখো মানুষ।

পানি অব্যাহতভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার ছোট, বড় দশটি শাখা নদীতেও পানি ঢুকে নুতন এলাকা প্লাবিত হতে শুরু করেছে।বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ভিতরে থাকা জেলার হুরাসাগড়, বিলসূর্য, করতোয়া ও ফুলজোর নদীতেও পানি বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। তলিয়ে যাচ্ছে নিম্নাঞ্চলের ফসলি জমি। দেখা দিচ্ছে গো খাদ্য সংকট।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, শুক্রবার দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে যমুনার পানি সিরাজগঞ্জ হার্ডপয়েন্টে ১৪ দশমিক ৩৪ মিটার রেকর্ড করা হয়েছে। বর্তমানে যমুনার পানি বিপদসীমার ৯৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সূত্রটি আরও জানায় শুক্রবার রাত হতে পানি কমতে পারে।

এদিকে জেলা প্রশাসন বন্যা মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্ততি গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন জেলা দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ।জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক (ডিডি) মো. হাবিবুল হক বলেন, 'জেলার প্রায় ৬ হাজার ৪শ’ হেক্টর পরিমাণ জমির পাট, রোপা আমন, আউশ ও সবজির ক্ষেতে পানি উঠেছে। তবে এখনও কোনও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ পরিমাপ করা যায়নি।

আরও পড়ুন: বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ভূঞাপুর-তারাকান্দি সড়ক মেরামতে কাজ করছে সেনাবাহিনী

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম বলেন, 'যমুনার পানি বাড়ার তীব্রতার কারণে চরাঞ্চল অধ্যুষিত গ্রামগুলোতে বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে।এ পর্যন্ত জেলার ৫টি উপজেলার ৩৫টি ইউনিয়নের ১৮১ টি গ্রাম বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। এসব গ্রামের ২১ হাজার ৫৫২ পরিবারের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। বন্যার্তদের বিতরণের জন্য ৪৯৪ টন চাল ও ৮ লাখ টাকা মজুদ রয়েছে। এগুলো বিতরণ করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন