শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ডিজিটাল জন্ম সনদপ্রাপ্তিতে দুর্ভোগ 

আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:১০

ডিজিটালাইজেশনের অন্যতম উদ্দেশ্য হলো, দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যবস্থাকে উপড়ে ফেলার মধ্য দিয়ে সব ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা। দুঃখজনক হলেও সত্য, এই দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যবস্থা পিছু ছাড়েনি ডিজিটালাইজেশনেও। সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে, ডিজিটালসেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে প্রথম যে শর্তারোপ করেছে তা হলো, প্রত্যেক নাগরিকের জন্মনিবন্ধন ও জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) কার্ড থাকা বাধ্যতামূলক।

সাম্প্রতিককালে করোনার টিকা, ন্যাশনাল আইডি কার্ড, পাসপোর্ট, জমি রেজিস্ট্রেশন, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ব্যাংকে হিসাব খোলা, টিআইএন সার্টিফিকেট, চাকরিতে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ, বিয়ে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তিসহ মোট ১৭টি পরিষেবা পেতে ডিজিটাল জন্মনিবন্ধন অপরিহার্য। এ সমস্ত পরিষেবা পেতে জন্মনিবন্ধন বাধ্যতামূলক হওয়ায় এর সঙ্গে সংশিষ্ট দুর্নীতিবাজ চক্রের হাতে অতিরিক্ত অর্থ আদায়সহ নানাবিধ হয়রানির শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এ যেন ডিজিটাল বিড়ম্বনা! গত ৪ ডিসেম্বর সংবাদপত্রের এক প্রতিবেদনে এসেছে, ডিজিটাল নিবন্ধনে সাধারণ মানুষের নানাবিধ হয়রানির মূল কারণ প্রয়োজনীয় ও দক্ষ জনবলের সংকট, ত্রুটিপূর্ণ প্রযুক্তি ও অ্যাপের ব্যবহার, দালালচক্রের সিন্ডিকেটেড কারসাজি, ইন্টারনেটের অস্বাভাবিক ধীরগতি এবং সার্ভারের ত্রুটি। আমরা জানি, ডিজিটালাইজেশন মানুষকে যথাযথ স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় সেবাপ্রাপ্তির গ্যারান্টি দেয়। কিন্তু এখন দেখতে পাচ্ছি সম্পূর্ণ উলটো।

জন্মনিবন্ধন কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশনের সুবিধা ভোগের প্রাথমিক শর্ত। কিন্তু তা পূরণের ক্ষেত্রেই মানুষ পদে পদে অব্যবস্থাপনার সম্মুখীন হচ্ছে। অতএব সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন থাকবে, ডিজিটাল জন্মনিবন্ধনের ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যাগুলোর সীমাবদ্ধতা দূর করে দুর্নীতিমুক্ত পরিষেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কার্যকর উদ্যোগ নেওয়ার। 

কে এম ছালেহ আহমদ বিন জাহেরী 
নাঙ্গলকোট, কুমিল্লা

ইত্তেফাক/কেকে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সুন্দরবনে মৌয়ালরা নিরাপদে নাই

শিশুদের খেলাধুলার সময় দিন 

আন্তঃনগর ট্রেন, সেবা না ভোগান্তি! 

সার্কাসও গেলো হারিয়ে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিনামূল্যে স্যানিটারি প্যাড 

গুলিস্তান-সদরঘাট ফ্লাইওভার জরুরি