বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩, ৯ চৈত্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা সংসদের আহ্বায়ক কমিটি গঠন 

আপডেট : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২৪

'নতুন জ্ঞান সৃষ্টি জন্য গবেষণা (Research for Generating New Knowledge)' এই স্লোগানকে সামনে রেখে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা সংসদ (Barishal University Research Society-BURS) এর আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে গবেষণাকে আকর্ষণীয়, সহজবোধ্য ও তাদেরকে গবেষণামূখী করে শিক্ষার্থীদের মাঝে গবেষণা সংস্কৃতি গড়ে তোলার লক্ষ্যে শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ ও বিভাগের গবেষণায় আগ্রহী শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ কমিটি গঠিত হয়।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা সংসদের মূল লক্ষ্য হলো, গবেষণায় শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করা এবং তাদেরকে গবেষণামূখী করতে নানাবিদ পদক্ষেপ গ্রহণ, শিক্ষার্থীদের জন্য গবেষণার সুস্থ চর্চা ও সংস্কৃতি গড়ে তুলতে সাহায্য করা, শিক্ষকদের সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের যৌথ উদ্যোগে গবেষণা কর্মকাণ্ড সম্পর্কে ধারণা নেওয়া ও কাজ করা, কার্যকরী গবেষণা পরিচালনার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সমাধানে অবদান রাখা, গবেষণাকর্মে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংযোগ বৃদ্ধির সুযোগ সৃষ্টি করা, বাংলাদেশে গবেষণাবান্ধব বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার পথে অবদান রাখা, শিক্ষার্থীদের; বিশেষত স্নাতক পর্যায়ে গবেষণার প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণে কাজ করা। সেই সঙ্গে বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসাবে গড়ে তোলার পথে অবদান রাখা এবং একটি গতিশীল ও পরস্পরের ওপর ক্রিয়াশীল বৈশ্বিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে সংযুক্ত থাকা।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা সংসদের সহযোগিতায়, দেশের অপরাপর গবেষণা সংসদের সঙ্গে সমন্বয় করে ২০২০ সালে বিশ্বে ভয়াবহ করোনা সংক্রমণের দুঃসময়ের দিনগুলোর শুরুর দিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা সংসদের অভ্যন্তরীণ টিম গঠনের প্রক্রিয়ার ধারাবাহিকতায় এই আহ্বায়ক কমিটির যাত্রা হলো।।

২১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটির সদস্যরা হলেন- মানসুরান নাহার জুথি (আইন, ২০১৩-১৪ সেশন), হেলাল খান (বাংলা), ফারহানা ইয়াসমিন (সমাজবিজ্ঞান)
মো. হাসান শাহরিয়ার (উপকূল বিদ্যা এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা), আজিজুল হাকিম (হিসাববিজ্ঞান), মো. মাহাবুব হোসেন (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা), কাজী নাভিদ নাসিফ (লোক প্রশাসন), মো. মাহমুদুল হাসান (সমাজবিজ্ঞান), মীর শরিফুল ইসলাম (রাষ্ট্রবিজ্ঞান), মো. আবু তালহা তানভীর (বায়োকেমিস্ট্রি ও বায়োটেকনোলজি), মো. আজম খান (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা), অন্তর পাল (ইংরেজি), সানজিদা ইসলাম জুঁই (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা), সান্তা রহমান (বাংলা), মো. আরিফুল ইসলাম সৌরভ (মৃত্তিকা ও পরিবেশ বিজ্ঞান), জেবা তাসনিম কারিমা (অর্থনীতি), মো. রিয়াজুল ইসলাম (ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা), তানভীর রহমান দীপ্ত (পদার্থ বিজ্ঞান), মেসবাহ উদ্দিন মারুফ (গণিত), মো. আরমান (পরিসংখ্যান), সাদিয়া রহমান (উদ্ভিদবিজ্ঞান), মো. সালমান (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা), তানজীদ শাহ জালাল ইমন (ইতিহাস), নুপুর খাতুন (আইন) এবং নায়েব জাকারিয়া (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা)।

এ সংগঠন  বিইউপি, রাবি, সাস্ট, ইবি, কবি নজরুল, নোয়াখালী, কুমিল্লা, হাজি দানেশ, জাবি, জগন্নাথসহ প্রতিটি গবেষণা সংসদের ধারাবাহিকতায় এবং একই নেটওয়ার্কিংয়ে প্রতিষ্ঠিত।

গবেষণা সংসদ দেশের বাইরের  অন্য অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা সংগঠনের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের মধ্যদিয়ে গবেষণামনস্ক শিক্ষার্থীদের একটি বিস্তৃত সংযোগে যুক্ত করে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। 

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা সংসদ প্রতিষ্ঠার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশে শিক্ষার্থীদের মাঝে গবেষণা সংসদের যাত্রা শুরু হয়। তারই ধারাবাহিকতায় অপরাপর বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে গবেষণা সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে এবং ঢাবি গবেষণা সংসদ এতে সার্বিক সহযোগিতা করছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অভিভাবক উপাচার্যের প্রধান পৃষ্ঠপোষকতা, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও ট্রেজারারের পৃষ্ঠপোষকতায়, প্রক্টর, টিএসসির পরিচালক সহ বিভিন্ন অনুষদের প্রধান, ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক, শিক্ষক, দেশ-বিদেশের গবেষকদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে গবেষণা সংসদ শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে তাদের ব্যতিক্রমধর্মী কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। তাদের মূল লক্ষ্য, শিক্ষার্থীদের মাঝে গবেষণা সংস্কৃতি গড়ে তোলা, সারা দেশে একটি সুগঠিত স্নাতক গবেষণা কমিউনিটি গড়ে তোলা, শিক্ষার্থীদের গবেষণা চাকরির দিকে ধাবিত করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে গবেষণাবান্ধব হিসেবে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা।

ইত্তেফাক/এআই